Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » দক্ষিণ কোরিয়ায় বন্যা পরিস্থিতির ভয়াবহ অবনতি, মৃত্যু বেড়ে ১৬




দক্ষিণ কোরিয়ায় বন্যা পরিস্থিতির ভয়াবহ অবনতি হয়েছে। ভারি বৃষ্টিতে তলিয়ে গেছে দেশটির বিভিন্ন শহরের ঘরবাড়ি ও রাস্তাঘাট। বন্যায় সিউলস এর পার্শ্ববর্তী এলাকায় গত ৩ দিনে ১৬ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। সোমবার (৮ আগস্ট) রাত থেকে বুধবার (১০ আগস্ট) সকাল পর্যন্ত ৫২৫ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয় সিউলসহ আশপাশের এলাকায়। এ সময়ের মধ্যে ইয়াংপিয়ং ও পশ্চিম সিউল এলাকায় রেকর্ড করা হয় ৫২৬ দশমিক ২ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত। সরকারি তথ্য অনুযায়ী, বন্যায় ৭ জন নিখোঁজ রয়েছেন। তাদের মধ্যে সিউলের ৪ জন এবং ৩ জন গিয়ংগি প্রদেশের বাসিন্দা। গুরুতর আহত হয়েছেন ১৭ জন। স্থনীয় প্রশাসন জানায়, বন্যায় মোট ২ হাজার ৬৭৬টি বাড়িঘর প্লাবিত হয়েছে। এর বেশির ভাগই সিউলের মধ্যে। এ ছাড়া দেশজুড়ে ৭২৪টি বসতবাড়ির ১ হাজার ২৫৩ জন লোক সাময়িক বাস্তুচ্যুত হয়েছেন। আরও পড়ুন: দক্ষিণ কোরিয়ার সিউলে প্রবল বন্যা, বহু হতাহত এদিকে তিন দিনের টানা বৃষ্টির কারণে সরকারি অনেক কাজ বন্ধ ছিল। বন্যায় প্লাবিত হয়ে সাময়িক বন্ধ হয়ে যায় সিউল এলাকার অনেক রেল ও পাতাল লাইন। তবে বন্ধ হওয়া সরকারি পরিষেবা বুধবার সকাল থেকে চালু করা হয়েছে। এ ছাড়া রাজধানীর পূর্ব দিকে সিউলের প্রবেশপথ দংবো হাইওয়েতে যান চলাচল শুরু হয়েছে, যা যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গিয়েছিল। যদিও এখনো অনেক হাইওয়ে বন্ধ রাখা হয়েছে। সিউল, ইনচন, পশ্চিম সিউলে অতিরিক্ত বৃষ্টিপাতের সতর্কতা সংকেত কমানো হলেও, উচ্চ সতর্ক সংকেত বজায় রেখেছে ছুংচং প্রদেশের মধ্যবর্তী অঞ্চল, যেখানে প্রতি ঘণ্টায় ৫০ -৮০ মিলিমিটার পর্যন্ত বৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর। সবাইকে সাবধানতা অবলম্বন করে চলাচলের জন্য বলা হয়েছে। যে কোনো প্রয়োজনে জরুরি সেবা নম্বর ১১৯-এ ফোন দিয়ে সাহায্য নিতেও বলা হয়েছে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply