Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » বিজ্ঞাপনের জেরে বির্তকের মুখে হৃত্বিক!




ভারতীয় অনলাইন ফুড ডেলিভারি সংস্থা ‘জোম্যাটো’র বিজ্ঞাপন করে এবার বির্তকের মুখে পড়লেন বলিউড তারকা হৃত্বিক রোশন। উজ্জয়িনীর বিখ্যাত মহাকাল মন্দিরের দুই পুরোহিত অনলাইন ফুড ডেলিভারি ফার্ম জোম্যাটোকে বিজ্ঞাপনটি প্রত্যাহার করার দাবি করেছেন। তারা মনে করছেন, এই বিজ্ঞাপন হিন্দু অনুভূতিতে আঘাত করেছে। মূলত বিজ্ঞাপনটিতে হৃত্বিক বলেছেন যে, ‘থালি খানেকা মন থা, তো ‘মহাকাল’ সে মাঙ্গা লিয়া’-এই হল বিজ্ঞাপনটির সংলাপ। যা শুনে বোঝা যাচ্ছে ‘মহাকাল’ নামে কোনও রেস্তোরাঁ থেকে খাবার আনানোর কথা বলা হচ্ছে। তাহলে কেন সমস্যা এই বিজ্ঞাপনে? Reneta June সমস্যা হলো ‘মহাকাল’ নামটিতে। কারণ এটি মধ্যপ্রদেশের অন্যতম প্রসিদ্ধ ‘মহাকাল’ বা ‘মহাকালেশ্বর’ মন্দিরের সঙ্গে সম্পর্কিত বলে দাবি সেখানকার পুরোহিতদের। ফলে এই মন্দিরের পুরোহিতরা হৃত্বিক রোশনের বিজ্ঞাপনটির বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন। বিজ্ঞাপন মন্দিরের পুরোহিত মহেশ এবং আশিষ সিং জানিয়েছেন, জোম্যাটোর অবিলম্বে বিজ্ঞাপনটি প্রত্যাহার করে নেওয়া উচিত এবং ক্ষমা চাওয়া উচিত। যাতে কেউ পুনরায় হিন্দু ধর্ম নিয়ে এভাবে মজা না করেন। অন্যদিকে মহাকালেশ্বর মন্দির ট্রাস্টের চেয়ারম্যান আশিষ সিংয়ের দাবি, বিজ্ঞাপনটি বিভ্রান্তিকর। কারণ মন্দিরে ভোগ ভক্তদের প্রসাদ আকারে বিনামূল্যে দেওয়া হয়। এটি বিক্রি করা হয় না। যার প্রেক্ষিতে জোম্যাটোর তরফে দাবি করা হয়েছে যে, সারাদেশে একটি বিজ্ঞাপন ক্যাম্পেইন চালানো হচ্ছিল। যেখানে প্রতিটি শহরের জনপ্রিয় রেস্তোরাঁ এবং জনপ্রিয় খাবার বেছে নেওয়া হয়েছিল। উজ্জ্বয়িনীর জন্য মহাকাল রেস্তোরাঁ বেছে নেওয়া হয়েছিল। তবে আমরা উজ্জ্বয়িনীর মানুষের ভাবাবেগেকে সম্মান করি এবং যে বিজ্ঞাপন নিয়ে বিতর্ক উঠেছে, সেটি বন্ধ করেছি। আমরা আন্তরিকভাবে ক্ষমাপ্রার্থী। কারও বিশ্বাস ও ভাবাবেগে আঘাতের কোন উদ্দেশ্য কখনও ছিল না আমাদের।’






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply