Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » ঘুরেফিরে ব্যর্থ সৌম্য, শতক পেয়ে নৃত্য নাঈমের




ঘুরেফিরে ব্যর্থ সৌম্য, শতক পেয়ে নৃত্য নাঈমের ঘুরেফিরে ব্যর্থ সৌম্য, শতক পেয়ে নৃত্য নাঈমের ছবি- সংগৃহীত সর্বশেষ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আসরে দল হিসেবে ব্যর্থতার চরম অবস্থা দেখেছিল টিম বাংলাদেশ। এরপরও এই ফরম্যাটে বাংলাদেশের পারফরম্যান্স বেশ হতাশার। গত ১ বছরে বাংলাদেশ ১৪ ম্যাচে জিতেছে মাত্র ২টি ম্যাচ। টি-টোয়েন্টিতে সাফল্য পেতে এবং আধুনিক ক্রিকেটের সঙ্গে মানিয়ে নিতে আগ্রাসী ব্যাটসম্যানদের দিকে ঝুঁকতে চাইছে টিম ম্যানেজমেন্ট। সেই কারণে আসন্ন এশিয়া কাপের স্কোয়াড ঘোষণার আগে বেশ ভালোভাবে শোনা যাচ্ছিল সাব্বির রহমানের সঙ্গে ফিরতে চলেছেন সৌম্য সরকার। তবে ব্যাট হাতে চরম বাজে সময় পার করা সৌম্যের ভাগ্যের শিকে ছেড়েনি। এশিয়া কাপের দলে সাব্বির ফিরলেও সৌম্য ব্রাত্য থাকলেন। ে তবুও সৌম্যকে বিশ্বকাপের জন্য বিবেচনা করায় এই ক্রিকেটারকে ফিরে আসার মঞ্চ তৈরি করার চেষ্টা ছিল বোর্ডের। সেই কারণে ওয়ানডে ফরম্যাটে খেলার জন্য সৌম্যকে ওয়েস্ট ইন্ডিজে পাঠানো হয়েছে। তবে এখানেও ব্যাট হাতে ব্যর্থতার ষোলকলা পূর্ণ করছেন এই বাঁহাতি ব্যাটার। অন্যদিকে এশিয়া কাপের দলে সুযোগ পাওয়া সাব্বির ঠিকই সুযোগ কাজে লাগিয়ে রানে ফেরার কাজ করছেন। এদিকে ব্যাটিংটা ঠিক টি-টোয়েন্টিসুলভ নয় টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের হয়ে মোটামুটি সফল নাঈম শেখকে লম্বা সময় ধরে ক্ষুদ্রতর ফরম্যাট থেকে বাহিরে রেখেছে টিম ম্যানেজমেন্ট। কেবল তাই নয় এই ফরম্যাটে নাঈমকে ঠিক বিবেচনায় রাখেনি বোর্ড। সেই নাঈম ঠিকই ব্যাট হাতে শতক হাঁকিয়ে নিজের সামর্থ্যের জানান দেওয়ার চেষ্টায় আছেন। লম্বা সময় পর শতক পেয়ে আনন্দে নৃত্যও করছেন মাঠে।

সৌম্য এবং নাঈমের পরিসংখ্যানে যদি চোখ বুলানো হলে দেখা যায় আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে সৌম্য ৬৬ ম্যাচে ১১৩৬ রান করেছেন। গড় মাত্র ১৮ হলেও স্ট্রাইক রেট ১২২ এই ব্যাটারের। ওয়ানডেতেও ৯৭ এর বেশি স্ট্রাইক রেটে রান আছে ১৭৬৮। গড়ও ভদ্রস্থ ৩২.১৪। তবে উইন্ডিজ ‘এ’ দলের বিপক্ষে সর্বশেষ দুই ম্যাচে ১৫ ও ৬ রানে দৃষ্টিকটুভাবে আউট হয়ে ফেরার লড়াইটা নিজের জন্য নিজেই কঠিন করে তুলেছেন সৌম্য। এমনকি সাম্প্রতিক ঘরোয়া লিগ কিংবা ‘এ’ দলের হয়ে খেলা মোট ১০ ম্যাচে মাত্র একটি ফিফটি পেয়েছেন টাইগার এই সাবেক ওপেনার। এরমধ্যে সবচেয়ে বাজে বিষয় হচ্ছে সাত ইনিংসে সিঙ্গেল ডিজিটে আউট হয়ে ফিরেছেন এই ব্যাটার। আরও পড়ুন... ফিফার নিষেধাজ্ঞায় যেসব খেলতে পারবে না ভারত অন্যদিকে নাঈমের ৩৪ টি-টোয়েন্টিতে রান আছে ৮০৯। ২৪ গড় থাকলেও স্ট্রাইক রেট মোটেও টি-টোয়েন্টি সুলভ নয়। মাত্র ১০৩.৭১। ব্যাট হাতে সাম্প্রতিক সময়ে নাঈমও নেই সেরা ছন্দে। শেষ ম্যাচে শতক হাঁকানোর আগের ৯ ইনিংসে এই ব্যাটারেরও ফিফটি মাত্র ১টি। তবে সৌম্যের চেয়ে কিছু অংশে ভালো বলা যায়। উইন্ডিজ ‘এ’ দলের বিপক্ষে আগের ম্যাচেই শূন্যে ফেরা নাঈম এদিন আর ব্যর্থ হননি। ১১৬ বলে ১০৩ রান করে আনন্দে ২২ গজের পিচের পাশেই আনন্দে নৃত্যে মেতে উঠেছেন এই ব্যাটার। এদিন নাঈমের ব্যাট থেকে বাউন্ডারিতে আসে ৬২ রান। যেখানে ১৪ চারের পাশাপাশি ১ ছয়ের মারও রয়েছে। এ ছাড়াও সাব্বিরও ৫৮ বলে ৬ চার ও ১ ছয়ে করেছেন ৬২ রান। ম্যাচটি বাংলাদেশ জিতেও নিয়েছে। তবে বাংলাদেশ দলের ভালো সার্ভিসের জন্য ব্যাটারদেরও জিততে হবে নিজেদের ফর্মের সঙ্গে চলমান যুদ্ধে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply