Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » গরু পাচার মামলায় অনুব্রত ফের রিমান্ডে




ডে গরু পাচার মামলায় গ্রেফতার পশ্চিমবঙ্গের তৃণমূল কংগ্রেসের প্রভাবশালী নেতা অনুব্রত মন্ডলের ফের রিমান্ড আদেশ দিয়েছেন আদালত। শনিবার (২০ আগস্ট) ভারতের কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থার (সিবিআই) স্পেশাল কোর্টের বিচারক এ আদেশ দেন। আদেশে অনুব্রতকে বুধবার (২৪ আগস্ট) পর্যন্ত সিবিআই হেফাজতে রাখার নির্দেশ দেয়া হয়। বিচারক বলেন, এ সময়ে অনুব্রত মন্ডলের শারীরিক অবস্থার খোঁজখবর রাখতে হবে। এছাড়াও নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষা করতে হবে। চলতি মাসের ১১ তারিখ কলকাতা থেকে আনুমানিক আড়াইশো কিলোমিটার দূরের বীরভূমের নিচু পট্টি এলাকার নিজের বাড়ি থেকে গ্রেফতার হন তৃণমূল কংগ্রেসের বীরভূম জেলা সভাপতি এবং সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেসের কার্যকরী কমিটির সদস্য অনুব্রত মন্ডল ওরফে কেষ্ট। ‌ গ্রেফতার করার পর তাকে তোলা হয় আদালতে এবং ১০ দিনের সিবিআই রিমান্ডের মঞ্জুর করেন বিচারক। ‌শনিবার তাকে আদালতে তোলার কথা ছিল। সেই মতো কলকাতা থেকে সকালে আসানসোলের বিশেষ আদালতে নেয়া হয় তাকে। আরও পড়ুন: ভারতে পুরুষের তুলনায় গড়ে শয্যাসঙ্গী বেশি নারীদের ‌এজলাসে তোলা হলে অনুব্রত মন্ডলের আইনজীবীরা জামিনের আবেদন করেন। তবে সিবিআই আইনজীবী দাবি করেন, এই প্রভাবশালী নেতা জামিন পেলে কোটা আইনি ব্যবস্থা প্রভাব ফেলার চেষ্টা করবেন। গরু পাচার মামলায় বড় তথ্যপ্রমাণ হাতে রয়েছে সিবিআইয়ের হাতে। তাই এই মামলার তদন্ত চলার সময় এই ধরনের ব্যক্তিকে জামিন দিলে মামলা প্রভাবিত হওয়ার আশঙ্কা আছে।‌ এরপরই বিচারক জামিনের আবেদন নাকচ করে দিয়ে ২৪ আগস্ট পর্যন্ত সিবিআই হেফাজতের নির্দেশ দেন। ‌ এদিকে কলকাতা থেকে বিশেষ ব্যবস্থাপনায় নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে অনুব্রত মন্ডলকে আসানসোলে নিয়ে যাওয়ার পথে বিভিন্ন এলাকায় তৃণমূলের বিরুদ্ধে বৃক্ষ প্রদর্শন করেন বিজেপি এবং কংগ্রেস সমর্থকরা। মহাসড়কে মাগুর মাছ ফেলে অভিনব প্রতিবাদ দেখান কংগ্রেস সমর্থকরা। আরও পড়ুন: এবার দিল্লির উপমুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে সিবিআই প্রসঙ্গত, কথিত রয়েছে যে এক সময় মাগুর মাছ বিক্রি করতেন অনুব্রত মন্ডল। এই মুহূর্তে তার কয়েক হাজার কোটি টাকার সম্পদ রয়েছে বলে তৃণমূলের বিরুদ্ধ গোষ্ঠী বিজেপি বামফ্রন্ট এবং কংগ্রেসের পক্ষ থেকে দাবি তোলা হয়। ‌এরই মধ্যে সিবিআই তদন্তে নেমে প্রভাবশালী এই তৃণমূল নেতার বিভিন্ন অ্যাকাউন্ট থেকে কোটি কোটি টাকা জব্দ করেছে। এছাড়াও কোটি কোটি টাকার সম্পদের হদিস পাওয়া গেছে। ‌






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply