Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » শিরিন আবু আকলেহ হত্যার কথা স্বীকার ইসরাইলি বাহিনীর




প্রভাবশালী সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার সাংবাদিক শিরিন আবু আকলেহ হত্যার কথা স্বীকার করেছে ইসরাইলি সেনাবাহিনী। নির্মম ওই হত্যাকাণ্ডের প্রায় পাঁচ মাসের মাথায় সোমবার (৫ সেপ্টেম্বর) প্রথমবারের মতো হত্যার কথা স্বীকার করে তারা। এক বিবৃতিতে ইসরাইলি সেনাবাহিনী বলেছে, তাদের সেনার ছোড়া গুলিতে শিরিন আবু আকলেহ’র নিহত হওয়ার ‘উচ্চ সম্ভাবনা’ রয়েছে। তবে এ হত্যার জন্য জড়িত সেনাদের বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ আনা হবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে তারা। খবর সিএনএন। মার্কিন-ফিলিস্তিনি নাগরিক শিরিন গত ১১ মে ফিলিস্তিনের জেনিন শহরে ইসরাইলি সামরিক অভিযানের খবর সংগ্রহ করার সময় গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যান। এ ঘটনায় তার আরেক সহকর্মী আহত হন। জাতিসংঘ ও ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ এবং ওয়াশিংটন পোস্ট, নিউইয়র্ক টাইমস ও সিএনএনের মতো বেশ কয়েকটি মার্কিন সংবাদমাধ্যম হত্যাকাণ্ড নিয়ে তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। আরও পড়ুন: ইসরাইলি বাহিনীর গুলিতেই আল-জাজিরার সাংবাদিক নিহত: জাতিসংঘ সব তদন্ত প্রতিবেদনেই বলা হয়েছে, এক ইসরাইলি স্নাইপার গুলি করে আবু আকলেহকে হত্যা করেছে। অন্যদিকে ইসরাইল শুরু থেকেই এ হত্যাকাণ্ড নিয়ে তদন্ত করতে অস্বীকার করে আসছিল। তবে ইসরাইলের সেনাবাহিনী সোমবার বলেছে, খুব সম্ভবত তাদের একজন সেনার অনিচ্ছাকৃতভাবে ছোড়া গুলিতেই প্রাণ হারিয়েছিলেন সাংবাদিক শিরিন আবু আকলেহ। এ ঘটনায় নিজেদের সংশ্লিষ্টতার বিষয়ে এটাই এ পর্যন্ত ইসরাইলের প্রথম কোনো বক্তব্য। তবে এ হত্যাকাণ্ডের ব্যাপারে কোনো অপরাধ বিষয়ক তদন্ত করবে না বলেও জানিয়েছে ইসরাইল। আরও পড়ুন: সাংবাদিক শিরিন হত্যাকাণ্ড: ইসরাইলকে বাঁচানোর চেষ্টায় যুক্তরাষ্ট্র! শিরিন আবু আকলেহ হত্যাকাণ্ডের পর প্রায় পাঁচ মাস গড়িয়েছে। ইসরাইলি বাহিনীর গুলিতে নিহত হওয়ার সব তথ্য-প্রমাণ থাকার পরও এখনও ন্যায়বিচার পাচ্ছে না তার পরিবার। লোমহর্ষক ওই হত্যাকাণ্ডের স্বাধীন ও নিরপেক্ষ তদন্তের জন্য এখনও যুক্তরাষ্ট্র সরকারের কাছে আকুতি জানাচ্ছে পরিবার। কিন্তু নিজ দেশের নাগরিক আকলেহ’র ন্যায়বিচারে অনীহা দেখাচ্ছে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন সরকার।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply