Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » মিয়ানমারে যুক্তরাজ্যের সাবেক রাষ্ট্রদূতের কারাদণ্ড




মিয়ানমারে যুক্তরাজ্যের সাবেক রাষ্ট্রদূত ভিকি বোম্যান ও তার স্বামীকে এক বছর করে কারাদণ্ড দিয়েছেন দেশটির সামরিক আদালত। খবর সিএনএন। সংবাদমাধ্যমের খবরে জানা যায়, বোম্যানের বিরুদ্ধে ভিসা আইন লঙ্ঘন এবং তার স্বামীর বিরুদ্ধে তাকে মিয়ানমারে থাকতে সহায়তা করার অভিযোগ আনা হয়। গেল সপ্তাহে মিয়ানমারের ইয়াঙ্গুন থেকে গ্রেফতার করা হয় তাদের। তেইন লিন ও ভিকি বোম্যান বিয়ে করার পর তারা লন্ডনে চলে যান। এরপর ২০১৩ সালে তারা আবারও ইয়াঙ্গুনে ফিরে আসেন। জানা যায়, বোম্যান ২০০২ থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত মিয়ানমারে যুক্তরাজ্যের রাষ্ট্রদূত হিসেবে কাজ করেন। তার স্বামী একজন বার্মিজ শিল্পী এবং সাবেক রাজবন্দি। রাষ্ট্রদূত হিসেবে দায়িত্ব পালনের আগে ভিকি বোম্যান ১৯৯০ সাল থেকে ১৯৯৩ সাল পর্যন্ত ব্রিটিশ দূতাবাসে সেকেন্ড সেক্রেটারি ছিলেন। আরও পড়ুন: জাতিসংঘ দূতের প্রথম মিয়ানমার সফর বোম্যান বর্তমানে ইয়াঙ্গুনে ‘মিয়ানমার সেন্টার ফর রেসপন্সিবল বিজনেস’ (এমসিআরবি) পরিচালনা করে আসছেন। যুক্তরাজ্য সম্প্রতি মিয়ানমারে সামরিক বাহিনী সংশ্লিষ্ট ব্যবসায় নতুন নিষেধাজ্ঞা আরোপের সিদ্ধান্ত জানায়। পাশাপাশি আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে চলা মামলায় যোগ দেয়ার ঘোষণা দেয়। এরপরই জান্তা সরকার বোম্যানকে গ্রেফতার করে। আরও পড়ুন: বিদেশিদের সঙ্গে রাজনৈতিক দলগুলোর বৈঠকে নিষেধাজ্ঞা মিয়ানমার জান্তার ইয়াঙ্গুনে এই দম্পতির যেমন বাড়ি রয়েছে, তেমনি শান প্রদেশেও তাদের বাড়ি আছে। সেখান থেকে ফেরার পর গত সপ্তাহে তাদের গ্রেফতার করা হয়। জান্তা সরকার বলছে, শান প্রদেশে যে তাদের থাকার অনুমতি রয়েছে, তা দেখাতে ব্যর্থ হওয়ায় এই দম্পতিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এদিকে, সাবেক ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূতের সাজার নিন্দা জানিয়েছে জাতিসংঘ।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply