Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » » জলবায়ু, রোহিঙ্গা ও নিরাপত্তা ইস্যুতে ঢাকার সাথে কাজ করতে আগ্রহী যুক্তরাষ্ট্র’




জলবায়ু, রোহিঙ্গা ও নিরাপত্তা ইস্যুতে ঢাকার সাথে কাজ করতে আগ্রহী যুক্তরাষ্ট্র’

আঞ্চলিক স্থিতিশীলতার জন্য রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন জরুরি। সেটি বাস্তবায়নে ইন্দো-প্যাসিফিক স্ট্র্যাটেজি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে বলে দাবি করেছেন মার্কিন সামরিক ও রাজনৈতিক উপ-সহকারী সেক্রেটারি ডোনা এ ওয়েলটন। যমুনা টেলিভিশনকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি জানান, জলবায়ু পরিবর্তন, রোহিঙ্গা সংকট ও নিরাপত্তা চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় ঢাকার সাথে কাজ করতে আগ্রহী বাইডেন প্রশাসন। এ অঞ্চলে অন্য দেশের চেয়ে তুলনামূলকভাবে অর্থনৈতিক সক্ষমতায় এগিয়ে বাংলাদেশ। ধারাবাহিকতার চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় সহনশীলতা বৃদ্ধি ও নিরাপত্তা নিশ্চিতে মনোযোগী হতে বলেছেন মার্কিন উপ-সহকারী সেক্রেটারি ডোনা এ ওয়েলটন। আকাশ ও সমুদ্র খাতে সহযোগিতা বৃদ্ধির পাশাপাশি বাণিজ্যিক সহযোগিতায় ইন্দো-প্যাসিফিক স্ট্র‍্যাটেজির (আইপিএস) গুরুত্ব তুলে ধরেন তিনি। মার্কিন উপ-সহকারী সেক্রেটারি (সামরিক ও রাজনৈতিক) ডোনা এ ওয়েলটন বলেন, ইন্দো-প্যাসিফিক স্ট্র্যাটেজি যেকোনো দেশের সাথেই অর্থনৈতিক সহযোগিতা বৃদ্ধি করবে। বাংলাদেশ এই অঞ্চলে অর্থনৈতিকভাবে ভালো অবস্থানে। আমার মনে হয়, চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় সহনশীলতা বৃদ্ধি ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করা দরকার তাদের। এছাড়া, জলবায়ু পরিবর্তনের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা তো রয়েছেই। আইপিএস এই খাতে পরিকল্পনার মাধ্যমে সহযোগিতা করতে পারে। রোহিঙ্গা সংকট বাড়াচ্ছে আঞ্চলিক অস্থিতিশীলতা। সেক্ষেত্রে ইন্দো-প্যাসিফিক স্ট্র‍্যাটেজি বাস্তবায়নে কতটা সফল হবে ওয়াশিংটন? এ প্রসঙ্গে ডোনা এ ওয়েলটন জানান, জটিল ভূ-রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে যৌথ লক্ষ্যপূরণে বাংলাদেশের সাথে কাজ করতে আগ্রহী বাইডেন প্রশাসন। তিনি বলেন, অভিবাসন বিষয়ক সমস্যা সকল দেশেই। তবে মিয়ানমার থেকে জোরপূর্বক আসা রোহিঙ্গাদের কারণে এই অঞ্চলে অস্থিরতা বাড়ছে। ভূ-রাজনৈতিকভাবেই এই সংকট প্রকট হচ্ছে। আমরা এখানে ইন্দো-প্যাসিফিক স্ট্র্যাটেজির মাধ্যমে কাজ করতে চাই। একই সাথে, সমাধানও চাই।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply