Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » মিয়ানমারের গোলা প্রয়োজনে জাতিসংঘে জানাব: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী




মিয়ানমার সীমান্তে গোলাগুলি এবং কয়েক দফা সেখান থেকে গোলা এসে বাংলাদেশে পড়ার প্রেক্ষাপটে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, শান্তিপূর্ণ সমাধানে কাজ না হলে বিষয়টি জাতিসংঘকে জানাবে বাংলাদেশ। শনিবার দুপুরে ধানমন্ডিতে এক অনুষ্ঠানে মন্ত্রী এ কথা বলেন। তিনি বলেন, “বাংলাদেশের পক্ষ থেকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় পর্যায়ে হুঁশিয়ারি দেয়া হলেও তারা কথা দিয়ে কথা রাখেনি।” বাংলাদেশের পক্ষ থেকে চেষ্টা অব্যাহত থাকবে জানিয়ে আসাদুজ্জামান খান বলেন, “তাদের গুলি তাদের সীমানায় থাকা উচিত। তাদের বিজিপি বাহিনীর সাথে সব সময় যোগাযোগ হচ্ছে।” মিয়ানমার ভবিষ্যতে সংযত থাকবে আশা করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “কোনো উষ্কানিতেই বাংলাদেশ যুদ্ধে জড়াবে না।” রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশে প্রবেশ ঠেকাতে বিজিবি কঠোর রয়েছে বলেও জানান মন্ত্রী। মিয়ানমার সীমান্তে গোলাগুলির কারণে বাংলাদেশেও ভীতিকর পরিস্থিতির তৈরি হয়েছে। এমন অবস্থায় ঘুমধুমের একটি এসএসসি পরীক্ষাকেন্দ্র কক্সবাজার সরিয়ে নেয়া হয়েছে। এর আগে শুক্রবার শুক্রবার সকালে বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম সীমান্তের ওপারে ‘মাইন’ বিস্ফোরণে এক বাংলাদেশি যুবকের পা উড়ে গেছে। একই দিন সন্ধ্যায় মিয়ারমারের দিক থেকে কয়েকটি গোলা সীমান্তের এপারে এসে পড়ে। এতে একজন নিহত ও অন্তত পাঁচজন আহত হন বলে স্থানীয়রা জানান। সম্প্রতি মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যের রাখাইনদের সংগঠন আরাকান আর্মির সঙ্গে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর সংঘাতের মধ্যে সীমান্তে গোলা এসে পড়েছে; তবে সেটি বিস্ফোরিত হয়নি। এরপর বেশ কয়েকবার মিয়ানমারের যুদ্ধবিমানের আকাশসীমা লঙ্ঘনের ঘটনাও ঘটে। সীমান্তের বাসিন্দারা নিয়মিতই গোলাগুলির শব্দ পাচ্ছিলেন; যাতে তাদের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। সংবাদ মাধ্যমে জানা গেছে, রাখাইনদের সংগঠন আরাকান আর্মির অবস্থান লক্ষ্য করে মিয়ানমার সেনাবাহিনী বোমা বর্ষণ করে। সংঘাতের মধ্যে গত ২৮ অগাস্ট দুপুরে বান্দরবানের ঘুমধুমের তুমব্রু সীমান্তে মিয়ানমার থেকে দুটি অবিস্ফোরিত মর্টার শেল এসে পড়ে। এরপর ৩১ অগাস্ট রাখাইন রাজ্যের বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী মংডু শহরতলীতে আরাকান আর্মির সদস্যরা একটি পুলিশ পোস্টে হামলা চালিয়ে ১৯ জনকে হত্যা করে বলে প্রকাশিত সংবাদে দাবি করা হয়। আরাকান আর্মির দখলে নেওয়া পুলিশ ফাঁড়ি দখলে নিতে সেনাবাহিনীর এগোনোর খবরও আসে। এর মধ্যে ৩ সেপ্টেম্বর মিয়ানমারের দুটি যুদ্ধবিমান ও দুটি ফাইটিং হেলিকপ্টারের গোলা বাংলাদেশের সীমানার ভেতরে এসে পড়ে। এসব ঘটনায় বাংলাদেশে নিযুক্ত মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূতকে ডেকে কড়া প্রতিবাদও জানিয়েছে বাংলাদেশ সরকার।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply