Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » মানুষের ভালোবাসা দেখে মনে হচ্ছে পোড়াটা দরকার ছিল : রনি




মানুষের ভালোবাসা দেখে মনে হচ্ছে পোড়াটা দরকার ছিল : রনি গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠানে গ্যাস বেলুন বিস্ফোরণে দগ্ধ কৌতুক অভিনেতা আবু হেনা রনির শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়েছে। বর্তমানে শেখ হাসিনা বার্ন ইউনিটের ১৩ তলার কেবিনে অবস্থান করছেন তিনি। এখনও তার ডান হাতে ও শরীরের কিছু জায়গায় পোড়ার দাগ রয়েছে। ভক্ত অনুরাগীদের ভালবাসায় সিক্ত রনি বলেন, সবার ভালবাসা দেখে মনে হচ্ছে এই পোড়াটা দরকার ছিল। তার এ কথা শুনে সেখানে উপস্থিত বার্ন ইউনিটের প্রধান সমন্বয়ক ডা. সামন্ত লাল সেনসহ সবাই হাসলেন। মঙ্গলবার হাসপাতালের কেবিনের বেডে বসে কথা বলছিলেন রনি। তিনি বলেন, আগে খুব ব্যথা করত।এখন আর ব্যথা নেই। এ কারণে এখন খুবই ভালো লাগছে। শেখ হাসিনা বার্ন ইউনিটের প্রধান সমন্বয়ক ডা. সামন্তলাল সেন জানান, আগামী সপ্তাহে তাদের হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দেওয়া হতে পারে। ছাড়পত্র দেওয়ার সময় মিডিয়াকে জানানো হবে। জানা গেছে, গত ১৬ সেপ্টেম্বর রাতে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের চতুর্থ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে পুলিশ লাইনস মাঠে নাগরিক সম্মেলন ও সাংস্কৃতিক সন্ধ্যার আয়োজন করা হয়। এ সময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। অন্যদিকে অনুষ্ঠান শুরুর আগে অতিথিদের উদ্বোধনী মঞ্চে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে প্রধান অতিথির হাতে বেশ কিছু বেলুন দেওয়া হয়। কিন্তু বার বার চেষ্টার পরও বেলুনগুলো উড়ছিল না। পরে পায়রা উড়িয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীসহ অন্য অতিথিরা অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করে মূল মঞ্চের দিকে চলে যান। এরপর বেলুনগুলো নিয়ে যাওয়া হয় উদ্বোধন মঞ্চের পেছনে। কিছুক্ষণ পরই বিস্ফোরণের শব্দ শোনা যায়। উদ্বোধন মঞ্চের পেছনে সবগুলো বেলুনই বিস্ফোরিত হয়। এতে পাশে বসে থাকা কৌতুক অভিনেতা আবু হেনা রনিসহ পাঁচজন দগ্ধ হন। দগ্ধ বাকিরা হলেন- জিল্লুর রহমান, মোশারফ হোসেন, রুবেল হোসেন ও ইমরান হোসেন।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply