Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » সরকারের উন্নয়ন প্রচার করা সাংবাদিকদের নৈতিক দায়িত্ব: সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী




সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এমপি তার নির্বাচনী এলাকা ময়মনসিংহের মুক্তাগাছাসহ সারা দেশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে যেসব উন্নয়ন হচ্ছে তার বর্ণনা দিয়ে বলেছেন, ‘সরকারের এসব উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের কথা প্রচার করা সাংবাদিকদের নৈতিক দায়িত্ব ও কর্তব্য। সাংবাদিকরা জাতির বিবেক। আমার বিশ্বাস, তারা সত্য, নিরপেক্ষ ও বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনের মাধ্যমে সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডকে আরও ত্বরান্বিত করবেন।’ রোববার (২৩ অক্টোবর) সকালে ময়মনসিংহ জেলার মুক্তাগাছা প্রেসক্লাবের ৩৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন। কে এম খালিদ বলেন, ‘প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণের পর মুক্তাগাছার উন্নয়নে আমি ব্যাপক কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করেছি যার অনেকগুলো এরইমধ্যে বাস্তবায়িত হয়েছে এবং অনেকগুলো পাইপলাইনে রয়েছে। তাছাড়া গত মেয়াদে সংসদ সদস্য থাকাকালীনও মুক্তাগাছার ব্যাপক উন্নয়ন করেছি। নির্বাচনী ইশতেহার অনুযায়ী মুক্তাগাছার উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছি।’ তিনি বলেন, ১১০৭ কোটি টাকা ব্যয়ে ময়মনসিংহ-মুক্তাগাছা-মধুপুর মহাসড়ক যথাযথ মান ও প্রশস্ততায় উন্নীতকরণের প্রকল্প একনেকে অনুমোদিত হয়েছে। মুক্তাগাছা উপজেলার ১০টি ইউনিয়নে ১৫০ কিলোমিটার পাকা রাস্তা নির্মাণ প্রকল্প চূড়ান্ত অবস্থায় রয়েছে যা শিগগিরই একনেকে যাবে। তিনি বলেন, মুক্তাগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সকে আধুনিকায়ন করা হয়েছে যেখানে সিজারিয়ান অপারেশনসহ দৈনিক ১৩০০-১৪০০ রোগীর চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। এ হাসপাতাল ময়মনসিংহ বিভাগের শ্রেষ্ঠ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হিসাবে স্বীকৃতি লাভ করেছে। মুক্তাগাছা উপজেলার ৩৬টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে চার তলা ভবন নির্মাণ করা হয়েছে। মুক্তাগাছায় হাইটেক পার্ক, টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজ, টেক্সটাইল ভোকেশনাল ইনস্টিটিউট নির্মাণের কাজ চলমান রয়েছে। তাছাড়া মুক্তাগাছা উপজেলায় শিল্প-সংস্কৃতির প্রসারে একটি আধুনিক অডিটোরিয়াম ও একটি শহীদ মিনার নির্মাণ প্রকল্পও চূড়ান্ত পর্যায়ে। সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী বলেন, যেকোনো প্রেসক্লাবের উন্নয়নে নিয়মিত আয়ের উৎস দরকার। মুক্তাগাছা প্রেসক্লাবের জমি স্থায়ীভাবে (৯৯বছরের জন্যা) তাদের বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। জমিটি শহরের গুরুত্বপূর্ণ স্থানে অবস্থিত হওয়ায় মিলনায়তনসহ আধুনিক ভবন নির্মাণ করতে পারলে নিয়মিত আয়ের একটি বন্দোবস্ত হবে। এ ব্যাপারে আমার পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা দেয়া হবে। মুক্তাগাছা প্রেসক্লাবের কার্যকরী কমিটির সভাপতি এফ. এম. এ. সালামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন মুক্তাগাছা পৌরসভার মেয়র আলহাজ বিল্লাল হোসেন সরকার। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন মুক্তাগাছা প্রেসক্লাবের কার্যকরী কমিটির সদস্য এ. জেড. এম. ইমাম উদ্দিন মুক্তা। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন মুক্তাগাছা প্রেসক্লাবের কার্যকরী কমিটির সাধারণ সম্পাদক এম. ইদ্রিছ আলী। প্রতিমন্ত্রী এ উপলক্ষে আয়োজিত র‌্যালিতে অংশগ্রহণ করেন। এর আগে প্রতিমন্ত্রী মুক্তাগাছা উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস আয়োজিত মাধ্যমিক বিদ্যালয়সমূহে সংস্কৃতি চর্চা কার্যক্রম সম্প্রসারণের আওতায় মুক্তাগাছার ৪৪টি বিদ্যালয়ের সংগীত প্রশিক্ষক ও তবলা বাদকের মাঝে অনুদানের অর্থ বিতরণ করেন।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply