Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » » পরমাণু যুদ্ধ করা যাবে না: শি জিনপিং




ইউক্রেন-রাশিয়ার যুদ্ধ নিয়ে অব্যাহত বক্তব্যের মধ্যে ইউরোপ ও এশিয়ায় পরমাণু অস্ত্রের ব্যবহার এবং হুমকি দেয়া বন্ধ করতে বিশ্ব নেতাদের আহ্বান জানিয়েছেন চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। শুক্রবার (০৪ নভেম্বর) বেইজিংয়ে জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শলজের সঙ্গে বৈঠকের পর শি জিনপিং এ আহ্বান জানান। চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং ও জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শলজ, ছবি: রয়টার্স তিনি বলেন, ‘আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের যৌথভাবে পরমাণু অস্ত্র ব্যবহারের বা হুমকির বিরোধিতা, ইউরোপ ও এশিয়ায় পরমাণু সংকট রোধে পরমাণু অস্ত্র ব্যবহার এবং পরমাণু যুদ্ধ করা যাবে না।’ চীনের প্রেসিডেন্টের ওই বিবৃতিতে পরমাণু হুমকির জন্য কোনো নির্দিষ্ট দেশের কথা উল্লেখ করা হয়নি। তবে সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে পরমাণু অস্ত্র নিয়ে বিশ্ব নেতাদের বক্তব্য বৃদ্ধি পেয়েছে। ইউক্রেনে রাশিয়ার আট মাসের বেশি সময় ধরে চলা সংঘাত পরমাণু যুদ্ধে পরিণত হতে পারে বলে আশঙ্কা আরও তীব্র হয়েছে। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরু করে রাশিয়া। এরপর অব্যাহত রয়েছে ওই অভিযান। কিয়েভ ও মস্কোর মধ্যে এখন পর্যন্ত একাধিক শীর্ষ বৈঠক হলেও সংঘাত বন্ধ হয়নি। উভয়পক্ষের মধ্যে আলোচনাও বন্ধ রয়েছে। আরও পড়ুন: ট্রাম্প ক্ষমতায় থাকলে কি ইউক্রেন যুদ্ধ হতো? শুক্রবার (০৪ নভেম্বর) গ্রুপ অব সেভেন (জি-৭) শিল্পোন্নত দেশগুলো সতর্ক করে দিয়ে বলেছে, ইউক্রেনের সঙ্গে যুদ্ধে রাসায়নিক, জীবাণু বা পরমাণু অস্ত্র ব্যবহার করলে মস্কোকে ‘গুরুতর পরিণতি’ ভোগ করতে হবে। কৌশলগত বি৬১ পরমাণু বোমা ফেলার আদলে অক্টোবরে ইউরোপে পরমাণু মহড়া শুরু করে ন্যাটো। এই মহড়া রাশিয়ান সামরিক মহড়ার মতোই চালানো হয়েছে। উভয় পক্ষই এ মহড়াকে নিয়মিত হিসাবে বর্ণনা করেছে। রাশিয়া গত মাসে অভিযোগ করেছে, ইউক্রেন বাহিনী যুদ্ধক্ষেত্রে একটি ‘ডার্টি বোমা’ বিস্ফোরণের পরিকল্পনা করছে। ডার্টি বোমা হল একটি প্রচলিত বিস্ফোরক যন্ত্র যা তেজস্ক্রিয় পদার্থ দিয়ে তৈরি। চলতি সপ্তাহে জাতিসংঘের পরমাণু পর্যবেক্ষণ সংস্থা জানিয়েছে, রাশিয়ার অভিযোগের পর কিয়েভের অনুরোধে ইউক্রেনে পরিদর্শন করা তিনটি স্থানে ‘অঘোষিত পরমাণু কর্মকাণ্ডের’ কোনো আলামত পাওয়া যায়নি। আরও পড়ুন: রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ: কীভাবে দেখছে সৌদি আরব মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন সম্প্রতি হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন যদি ইউক্রেনে কৌশলগত পরমাণু অস্ত্র ব্যবহার করেন তাহলে বিশ্ব পরমাণু যুদ্ধের ঝুঁকির মুখোমুখি হতে পারে। পুতিন সেপ্টেম্বরে বলেছেন, ইউক্রেনের কাছ থেকে নেয়া অঞ্চলসহ রাশিয়ার কোনো অঞ্চল ন্যাটো বাহিনীর হুমকির মুখে পড়লে তিনি পরমাণু অস্ত্র ব্যবহারের ঝুঁকি নাকচ করে দিতে পারেন না। পুতিন ন্যাটোকে ‘পরমাণু ব্ল্যাকমেইল’ এবং রাশিয়াকে ‘ধ্বংস’ করার পরিকল্পনার জন্য অভিযুক্ত করেন। পরে মস্কো পরমাণু অস্ত্র ব্যবহারের হুমকি বাতিল করে জানায়, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং ন্যাটোর সঙ্গে কোনো সংঘর্ষের পরিকল্পনা ক্রেমলিনের নেই।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply