Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » » » বিশ্বকাপে টিকে রইল শ্রীলঙ্কা, ছিটকে গেল আফগানরা




বিশ্বকাপে টিকে রইল শ্রীলঙ্কা, ছিটকে গেল আফগানরা

সেমিফাইনালের দৌড়ে টিকে থাকতে হলে এই ম্যাচ জিততেই হবে এমন সমীকরণ নিয়ে ব্রিসবেনে নামে শ্রীলঙ্কা-আফগানিস্তান। সফলভাবেই এই সমীকরণ মেলালো লঙ্কানরা। আফগানিস্তানকে হারিয়ে তারা টিকে থাকলো বিশ্বকাপের মঞ্চে। আর হেরে ছিটকে গেল আফগানরা। আফগানিস্তানের বিপক্ষে ৬ উইকেটের সহজ জয় তুলে নিয়েছে এশিয়ান সিংহরা। আর তাতে বিশ্বকাপের মঞ্চে টিকে থাকলো দাসুন শানাকার দল। অন্যদিকে এই হারে বিশ্বকাপ থেকে এক ম্যাচ আগেই ছিটকে গেল মোহাম্মদ নবির আফগানিস্তান। ৪ ম্যাচ শেষে শ্রীলঙ্কার পয়েন্ট ৪। অন্যদিকে ৪ ম্যাচের মধ্যে ১টি মাত্র জয়ে ২ পয়েন্ট আফগানিস্তানের। ব্রিসবেনে টসে জিতে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেয় আফগানিস্তান। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৪৪ রানের বেশি তুলতে পারেনি দলটি। লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ৯ বল হাতে রেখে দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় শানাকার দল। যদিও রান তাড়ায় শুরুতে চাপে ছিল লঙ্কানরা। পাওয়ার প্লেতে লঙ্কান ব্যাটসম্যানদের হাত খুলতে দেননি মুজিব উর রহমানরা। ৬ ওভার শেষে শ্রীলঙ্কার স্কোর দাঁড়ায় ১ উইকেটে ২৮ রান। পাথুম নিসাঙ্কা নামের পাশে ১০ বলে ১০ রান যোগ করলেও রশিদ খানের শিকার হওয়ার আগে কুশাল মেন্ডিস ২৭ বলে ২৫ সংগ্রহ করেন। এরপর রশিদ খানের দ্বিতীয় শিকার হন চারিথ আসালাঙ্কা। সাজঘরে ফেরার আগে নামের পাশে ১৯ রান যোগ করেন তিনি। মুজিবের শিকার হওয়ার আগে ভানুকা রাজাপাকসে করেন ১৮ রান। তবে একপাশে ব্যাট আগলে লড়াই চালিয়ে যাওয়া ধনঞ্জয়া ডি সিলভা খেলেন ৬৬ রানের অপরাজিত ইনিংস। পুরো ম্যাচের মধ্যে একমাত্র এই লঙ্কান ব্যাটসম্যানই ফিফটি হাঁকাতে পেরেছেন। এর আগে ব্রিসবেনে টস জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে বড় টার্গেটের আভাস দিয়েছিল আফগানিস্তান। যদিও ব্যাটারদের ব্যর্থতায় শেষদিকে তেমন রান উঠেনি। তবে পাওয়ার প্লেতেই শক্ত ভিত গড়ে তোলে তারা। ৬ ওভারে কোনো উইকেট না হারিয়ে ৪২ রান তোলে আফগান ওপেনিং জুটি। লাহিরু কুমারার শিকার হওয়ার আগে রহমানউল্লাহ গুরবাজ ২৩ বলে ২৮ রান করেন। তিনি ২টি চার ও ২টি ছক্কা হাঁকান। অর্ধেক ইনিংস শেষে হাসরাঙ্গা ডি সিলভার বলে অধিনায়কের হাতে ক্যাচ তুলে সাজঘরে ফেরেন উসমান গনি। ক্রিজ ছাড়ার আগে ২৭ বলে ২টি চার ও ১টি ছক্কার বিনিময়ে ২৭ রান নেন এই ওপেনার। এরপর ১৮ বলে ১টি চার ও ১টি ছক্কায় ২২ রান করে প্যাভিলিয়নের পথে হাঁটেন ইব্রাহিম জাদরান। নাজিবুল্লাহ জাদরান অবশ্য ক্রিজ ছাড়ার আগে দলের স্কোরবোর্ডে ১৬ বলে ১৮ রান যোগ করেন তিনি। এরপর রান আউট হন গুলবাদিন নায়েব। তিনি সংগ্রহ করেন ১২ রান। ৮ বলে ১৩ রান নেন অধিনায়ক। এছাড়া নাজিবুল্লাহ জাদরান ১৮, গুলবাদিন নাঈব ১২, নবি ১৩, রশিদ ৯, আজমতুল্লাহ ৩ ও মুজিব ১ রান করেন। শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেটের বিনিময়ে ১৪৪ রানে থামে আফগানিস্তান। শ্রীলঙ্কার হয়ে হাসারাঙ্গা ৪ ওভারে ১৩ রানের বিনিময়ে ৩টি উইকেট নেন। এছাড়া লাহিরু কুমারা ২টি এবং ধনঞ্জয়া ডি সিলভা ও কাসুন রাজিথা নিয়েছেন ১টি করে উইকেট। এ জয়ের ফলে সেমির ক্ষীণ আশা বেঁচে রইল লঙ্কানদের। আর হারে আফগানদের সেমির আশা পুরোপুরি শেষ হয়ে গেল। সেমিফাইনালে যেতে হলে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে শেষ ম্যাচে জিততেই হবে শ্রীলঙ্কাকে। পাশাপাশি প্রতিপক্ষ দলগুলোর ফলাফলের দিকেও তাকিয়ে থাকতে তবে শানাকাদের।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply