Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » নৈতিকতা পুলিশ বিলুপ্ত করার ঘোষণা ইরানের




পুলিশি হেফাজতে কুর্দি তরুণী মাহসা আমিনির মৃত্যুর ঘটনাকে কেন্দ্র করে ইরানজুড়ে চলছে তীব্র বিক্ষোভ। এই বিক্ষোভের জেরে স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক চাপের মুখে অবশেষে নৈতিকতা পুলিশ বিলুপ্ত করার ঘোষণা দিয়েছে ইরান। রোববার (৪ ডিসেম্বর) দেশটির স্থানীয় গণমাধ্যম এ তথ্য জানিয়েছে। ইরানের অ্যাটর্নি জেনারেল মোহাম্মদ জাফার মোনতাজেরির উদ্ধৃতি দিয়ে বার্তা সংস্থা আইএসএন জানিয়েছে, ‘বিচার বিভাগের সঙ্গে নৈতিকতা পুলিশের কোনো সম্পর্ক নেই। এটি বিলুপ্ত করা হয়েছে।' এদিকে শনিবার (৩ ডিসেম্বর) ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি বলেছেন, ইরানের প্রজাতন্ত্র ইসলামের মৌলিক গঠনতন্ত্রের ভিত্তিতে গড়ে উঠেছে। তবে সাংবিধানিক অধিকার প্রয়োগের ক্ষেত্রে কোনো কোনো ক্ষেত্রে নমনীয় হওয়া যেতে পেরে। ১৯৪৩ সাল থেকে ইসলামিক আন্দোলনে শাহ রাজবংশের পতনের পর ইরানে নারীদের মাথায় হিজাব পরিধান বাধ্যতামূলক করা হয়। এ বছরের জুলাই মাসে দেশটির প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি সব প্রদেশে হিজাব আইন কঠোরভাবে পালনের আহ্বান জানান। ইরানে নৈতিকতা পুলিশের হেফাজতে ২২ বছর বয়সী কুর্দি তরুণী মাহসা আমিনির মৃত্যুর জেরে দেশটিতে বেশ কয়েক সপ্তাহ ধরে বিক্ষোভ চলছে। চলমান বিক্ষোভে সহিংসতার ঘটনাও ঘটেছে। আরও পড়ুন: চাপের মুখে কি হিজাব আইনে পরিবর্তন আনবে ইরান? দুই মাসের বেশি সময় ধরে চলা সরকারবিরোধী বিক্ষোভে দুই শতাধিক মানুষ নিহত হয়েছেন বলে ইরান সরকার প্রথমবারের মতো স্বীকার করেছে। এক বিবৃতিতে ইরানের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা সংস্থা জানায়, সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হওয়া সহিংসতায় দুই শতাধিক মানুষ নিহত হয়েছেন। দাঙ্গার ফলে এ প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে। এতে বলা হয়, ‘সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড’ চালানোর সময় বিদেশি বিভিন্ন গোষ্ঠীর সঙ্গে সংশ্লিষ্টরা নিহত হয়েছেন। নিহতদের বেশির ভাগই ‘দাঙ্গাকারী’ এবং ‘সশস্ত্র বিচ্ছিন্নতাবাদী গোষ্ঠীর সদস্য’। নিরাপত্তা সংস্থাটি জানিয়েছে, নিরপরাধ ব্যক্তি যারা নিহত হয়েছেন তারা নিরাপত্তা বিশৃঙ্খলার মাঝে মারা গেছেন। ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ডের (আইআরজিসি) শীর্ষ জেনারেল আমির আলী হাজিজাদেহ সহিংসতায় তিন শতাধিক লোক নিহত হয়েছে স্বীকার করার কয়েক দিন পর দেশটির রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা পরিষদের সংস্থা দুই শতাধিক মানুষ নিহতের কথা জানাল। তবে ইরানে সরকারবিরোধী সহিসংতায় চার শতাধিক মানুষ মারা গেছেন বলে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা জানিয়েছে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply