Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » » ২৪ বছর পর ফের তৃতীয়স্থানে ক্রোয়েশিয়া




গোটা ম্যাচে একের পর এক সুযোগ নষ্টের খেসারত দিলো মরক্কো। তৃতীয় স্থানের ম্যাচে ক্রোয়েশিয়া জিতল ২-১ ব্যবধানে। গোল করলেন জসকো গাভার্দিয়ল এবং মিরোস্লাভ ওরসিচ। যার ফলে ১৯৯৮ বিশ্বকাপের পর আবার তৃতীয় স্থানে বিশ্বকাপ শেষ করলো ক্রোয়াটরা। শনিবার রাতের এই ম্যাচে শুরু থেকেই দুই দল আক্রমণের রাস্তা বেছে নেয়। কেউ কাউকে ছেড়ে কথা বলেনি। প্রথম থেকেই মরক্কোর ওপর বেশি চাপ রাখার চেষ্টা করে ক্রোয়েশিয়া। যার ফলও পায় মদ্রিচরা। ম্যাচের সাত মিনিটেই ক্রোয়েশিয়াকে এগিয়ে দেন জসকো গাভার্দিয়ল। বক্সের বাইরে থেকে নেওয়া লুকা মদ্রিচের ফ্রি-কিক থেকে হেডে গোলমুখে ক্রস করেন ইভান পেরিসিচ। সেই বলেই হেড করে গোল করেন গাভার্দিয়ল। দু’মিনিট পরেই অবশ্য গোল শোধ দেয় মরক্কো। সমতা ফেরায় সেই ফ্রি-কিক থেকেই। ফ্রি-কিক নেন হাকিম জিয়েচ। হেডে ক্লিয়ার করতে গিয়ে বল পিছন দিকে ঠেলে দেন ক্রোয়েশিয়ার ডিফেন্ডার। সেই বলে মাথা ছুঁইয়ে গোল করেন দারি। প্রথমার্ধ শেষ হওয়ার আগেই অবশ্য এগিয়ে যায় ক্রোয়েশিয়া। মরক্কোর বক্সে একাধিক পাস খেলেন ক্রোয়েশিয়ার ফুটবলাররা। বক্সের কোনাকুনি জায়গা থেকে দারুণ শটে গোল করেন মিরোস্লাভ ওরসিচ। পোস্টে লেগে জালে জড়াল বল। দ্বিতীয়র্ধে গোল শোধ করতে আক্রমণের ধার বাড়ায় মরক্কো। একের পর এক আক্রমণ করলেও শেষ পর্যন্ত আর জালের দেখা পায়নি তারা। অ্যাটলাস সিংহদের সাজানো আক্রমণগুলো গোল মুখে গিয়েও জালের দেখা পাচ্ছিল না। দ্বিতীয়ার্ধে বেশ কিছু ভালো সুযোগ তৈরি করেছিল তারা। তবে বার বার ক্রোয়োশিয়ার রক্ষণে মুখ থুবড়ে পড়েছে তাদের আক্রমণ। অন্যদিকে দ্বিতীয়ার্ধে মরক্কোর গোলরক্ষক ইয়াসিন বোনোর দৃঢ়তায় গোলের ব্যবধান বাড়ানো হয়নি ক্রোয়েশিয়ার। ফলে ওই ২-১ ব্যবধানেই জয় নিয়ে মাঠ ছাড়েন মদ্রিচরা। তৃতীয় স্থান বির্ধারণী এই ম্যাচে জিতে একটি ব্রোঞ্জ পদক এবং ২৭ মিলিয়ন ডলার পেলো ক্রোয়েশিয়া। চতুর্থ হয়ে দুই মিলিয়ন ডলার কম পাবে মরক্কো, অর্থাৎ ২৫ মিলিয়ন ডলার।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply