Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » » মাল্টি মিশন যুদ্ধজাহাজ তৈরি করছে সৌদি আরব




সমুদ্রসীমার প্রতিরক্ষায় এবার নিজেদের যুদ্ধজাহাজ তৈরি করার পদক্ষেপ নিয়েছে সৌদি আরব। ছবি : সংগৃহীত সমুদ্রসীমার প্রতিরক্ষায় এবার নিজেদের যুদ্ধজাহাজ তৈরি করার পদক্ষেপ নিয়েছে সৌদি আরব। এ লক্ষ্যে স্পেনের রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন একটি কোম্পানির সঙ্গে চুক্তিও স্বাক্ষর করেছে রিয়াদ। স্পেনকে সঙ্গে নিয়ে মাল্টি মিশন যুদ্ধজাহাজ নির্মাণ করবে সৌদি আরব। সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা সৌদি প্রেস এজেন্সির (এসপিএ) বরাতে এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নিজেদের নৌ বাহিনীর জন্য স্পেনের সঙ্গে সৌদি আরব অত্যাধুনিক যুদ্ধজাহাজ নির্মাণ করতে যাচ্ছে বলে বৃহস্পতিবার সকালে জানিয়েছে এসপিএ। এ লক্ষ্যে সৌদি আরবের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বুধবার (৩০ নভেম্বর) স্পেনের রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন নাভান্তিয়া কোম্পানির সঙ্গে একটি সমঝোতা স্মারক (এমওইউ) স্বাক্ষর করেছে। মাল্টি মিশন যুদ্ধজাহাজ বলতে মূলত প্রাণঘাতী ও অত্যন্ত কৌশলী রণতরীকে বোঝানো হয়ে থাকে। এই ধরনের যুদ্ধজাহাজ সমুদ্রতীরবর্তী ভূখণ্ড এবং উন্মুক্ত মহাসাগরে অপারেশন চালাতে সক্ষম। সৌদি প্রেস এজেন্সিরর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ‘এই অঞ্চলে সামুদ্রিক নিরাপত্তা বাড়ানো এবং সৌদি আরবের গুরুত্বপূর্ণ ও কৌশলগত স্বার্থ রক্ষা করার জন্য সৌদির রাজকীয় নৌবাহিনীর প্রস্তুতির মাত্রা বাড়ানোই স্পেনের রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন কোম্পানির সঙ্গে সমঝোতা স্মারকের লক্ষ্য।’ চুক্তি অনুসারে, ‘সৌদি আরবের উদ্দেশ্য এবং ভিশন-২০৩০ এর সাথে সামঞ্জস্য রেখে নৌ জাহাজ নির্মাণ, যুদ্ধ ব্যবস্থার বিভিন্ন উপাদানের একীকরণ এবং জাহাজ রক্ষণাবেক্ষণের শতভাগ পর্যন্ত স্থানীয়করণ করবে’ স্প্যানিশ এই কোম্পানি। প্রতিরক্ষা মন্ত্রী যুবরাজ খালেদ টুইটারে বলেছেন, এই চুক্তি সৌদি প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের সক্ষমতা জোরদার করার জন্য ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানের ভিশনের মধ্যেই ছিল। তিনি বলেন, ‘এই সমঝোতা স্মারক আমাদের সামরিক শিল্পকে স্থানীয়করণ এবং প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের ক্ষমতায়ন ও শক্তিশালী করার জন্য আমাদের প্রধানমন্ত্রী যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের ভিশনেরই অংশ। এটি আমাদের দেশ এবং অঞ্চলের নিরাপত্তার সহায়ক হবে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply