Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » বিশ্বের দীর্ঘতম ১০টি মেট্রোরেল আছে যেসব শহরে: বিবিসি বাংলা




বহুল প্রতীক্ষিত মেট্রোরেলের উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বুধবার বেলা ১১টা ৫ মিনিটে মেট্রোরেলের ফলক উন্মোচন করে উদ্বোধন করেন তিনি। আর এর মাধ্যমেই মেট্রোরেল যুগে প্রবেশ করল বাংলাদেশ। শহরকেন্দ্রিক মানুষের যাতায়াত সহজ করতে অনেক আগে থেকেই ব্যবহার করা হয় মেট্রোরেল। এটিতে একই সঙ্গে যেমন অনেকে যাতায়াত করতে পারেন, তেমনি এড়ানো যায় যানজট। ফলে স্বাভাবিকভাবেই ব্যবহারের দিক থেকে যাত্রীদের পছন্দের তালিকায় এটি অনেকটাই এগিয়ে থাকে। বুধবার উত্তরা থেকে কমলাপুর পর্যন্ত ২১ দশমিক ২৬ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের মেট্রোরেলটির ১১ দশমিক ৭৩ কিলোমিটারের যাত্রীদের জন্য উন্মুক্ত করা হয়। এটি পিলারের মাধ্যমে মাটির উপরে নির্মাণ করা হয়েছে, যাকে বলা হয় ওভারগ্রাউন্ড এলিভ্যাটেড এক্সপ্রেস। এছাড়া অনেক শহরে মাটির নিচ দিয়েও মেট্রোরেল চলাচল করে, যা আন্ডারগ্রাউন্ড, সাবওয়ে বা টিউব নামে পরিচিত। চলুন দেখে নেওয়া যাক বিশ্বের সবচেয়ে দীর্ঘ ১০টি মেট্রোরেল লাইন কোনগুলো। ১. সাংহাই মেট্রো চীনে অবস্থিত সাংহাই মেট্রো পৃথিবীর দীর্ঘতম মেট্রো। ১৯৯৩ সালে ৮৩১ কিলোমিটার দীর্ঘ এই মেট্রো নির্মাণ করা হয়। পৃথিবীর অন্যতম ব্যস্ত এই মেট্রোরেলে ৫০৮টি স্টেশন রয়েছে। বছরে প্রায় তিন হাজার ৭০০ কোটি যাত্রী এই মেট্রো ব্যবহার করেন। ২. বেইজিং সাবওয়ে পৃথিবীর দ্বিতীয় দীর্ঘতম মেট্রোরেলের তালিকায় আছে চীনের আরেকটি মেট্রো লাইন, বেইজিং মেট্রো। মাটির নিচ দিয়ে চলাচল করা ৭৮৩ কিলোমিটারের এই সাবওয়ের স্টেশন সংখ্যা ৪৬৩টি। পূর্ব এশিয়ার সবচেয়ে পুরনো এই সাবওয়েটি ১৯৭১ সালে উদ্বোধন করা হয়। চীনে এই সাবওয়েটি ‘আন্ডারগ্রাউন্ড ড্রাগন’ নামেও পরিচিত। ৩. লন্ডন আন্ডারগ্রাউন্ড শহরের বাসিন্দাদের যাতায়াত সহজ করার লক্ষ্য নিয়ে লন্ডন আন্ডারগ্রাউন্ড পৃথিবীর প্রথম মাটির নিচে নির্মিত মেট্রো। ১৮৯০ সালে এটি নির্মাণ করা হয়। দৈর্ঘ্যের দিক থেকে তৃতীয় অবস্থানে থাকা ৪০২ কিলোমিটারের এই মেট্রো স্থানীয়ভাবে ‘টিউব’ নামে পরিচিত। ২৭০টি স্টেশনের এই মেট্রোতে দৈনিক ৫০ লাখেরও বেশি যাত্রী যাতায়াত করে। ৪. গুয়াংঝো মেট্রো দীর্ঘতম মেট্রোরেলের তালিকায় চতুর্থ স্থানে আছে চীনের আরেক মেট্রোরেল, গুয়াংঝো। ৬০৭ দশমিক ৬ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের এই মেট্রো ১৯৯৭ সালে জনগণের ব্যবহারের জন্য উন্মুক্ত করা হয়। ২৯৪টি স্টেশনের এই মেট্রোতে প্রতিদিন প্রায় এক কোটি মানুষ যাতায়াত করে থাকে। ৫. নিউইয়র্ক সিটি সাবওয়ে নিউইয়র্ক সাবওয়ে দীর্ঘতম মেট্রোলাইনের দিক থেকে পঞ্চম অবস্থানে আছে। ৩৯৯ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের সাবওয়েটিতে ১৯০৪ সালে চালু হয়। এতে ৪৭২টি স্টেশন আছে। ১১৮ বছরের পুরনো সাবওয়েটি প্রতিদিন ৫০ লাখের ওপরে যাত্রী ব্যবহার করে থাকে। ৬ দিল্লি মেট্রো পৃথিবীর ষষ্ঠ দীর্ঘতম মেট্রোটি রয়েছে বাংলাদেশের প্রতিবেশী রাষ্ট্র ভারতেই। ৩৯০ দশমিক ১৪ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের দিল্লি মেট্রোতে ২৮৬টি স্টেশন রয়েছে। ২০০২ সালে এর উদ্বোধন হয়। ৭. মস্কো মেট্রো দীর্ঘতম মেট্রোরেলের তালিকায় সপ্তম স্থানে আছে মস্কো মেট্রো। ৩৮১ কিলোমিটার দীর্ঘ এই মেট্রোর বর্তমানে স্টেশন সংখ্যা ২২৩টি। রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন এই মেট্রো ১৯৩৫ সালে চালু হয়। এই মেট্রোর ‘পার্ক পোবেডি’ স্টেশনটি মাটির ৮৪ মিটার গভীরে অবস্থিত, যা পৃথিবীর তৃতীয় গভীরতম স্টেশন। ৮. উহান মেট্রো করোনার প্রথম রোগী শনাক্তের শহর হিসেবে চীনের উহানের নাম অনেকেরই পরিচিত। এই উহান শহরেই আছে দৈর্ঘ্যের দিক থেকে পৃথিবীর অষ্টম দীর্ঘ মেট্রো। ৩৩৯ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের এই মেট্রোতে ২২৮টি স্টেশন আছে। ২০০৪ সালে স্টেশনটির উদ্বোধন হয়। এলিভ্যাটেড ও আন্ডারগ্রাউন্ড দুইভাবেই এটি পরিচালিত হয়। ৯. সিউল মেট্রোপলিটন সাবওয়ে দক্ষিণ কোরিয়ার রাজধানীতে অবস্থিত সিউল মেট্রোপলিটন সাবওয়ে দীর্ঘতম মেট্রোর তালিকায় নবম অবস্থানে রয়েছে। ৩১৯ দশমিক ৩ কিলোমিটার দীর্ঘ এই সাবওয়ে ১৯৭৪ সালে চালু হয়। এর স্টেশন সংখ্যা ২৯৩টি। ১০. মাদ্রিদ মেট্রো দশম অবস্থানে থাকা স্পেনের রাজধানীতে অবস্থিত মাদ্রিদ মেট্রোর দৈর্ঘ্য ২৯৪ কিলোমিটার। ৩০২ স্টেশনের এই মেট্রো ১৯১৯ সালে চালু হয়। বছরে প্রায় ৪৫ কোটি মানুষ মেট্রো ব্যবহার করে থাকে। সূত্র: বিবিসি বাংলা






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply