Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » ট্রাম্পের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা




সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। ইরানের সেনাবাহিনীর শীর্ষ কমান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল কাসেম সোলাইমানি ও ইরাকি কমান্ডার আবু মাহদি আল মুহান্দিস হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার দায়ে এ পরোয়ানা জারি করেছেন ইরাকের বিচার বিভাগীয় সর্বোচ্চ কর্তৃপক্ষ সুপ্রিম জুডিশিয়াল কাউন্সিল। কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট ফায়িক্ব জাইদানের বরাত দিয়ে এ খবর প্রকাশ করেছে সংবাদমাধ্যম আল-মনিটর। ট্রাম্পের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা কাসেম সোলাইমানি ও আবু মাহদি মুহান্দিস সিরিয়া ও ইরাকে জঙ্গিগোষ্ঠী আইএসবিরোধী লড়াইয়ে নেতৃত্ব দিচ্ছিলেন। ২০২০ সালের ৩ জানুয়ারি বাগদাদ বিমানবন্দরের কাছে ড্রোন হামলা চালিয়ে তাদের হত্যা করে মার্কিন বাহিনী। ইরানের জেনারেল কাসেম সোলাইমানি সে সময় রাষ্ট্রীয় অতিথি হিসেবে ইরাক সফরে এসেছিলেন। অবশেষে ওই হত্যাযজ্ঞের তিন বছর পর ইরাকের বিচার বিভাগ ট্রাম্পের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করলেন। আরও পড়ুন: জেনারেল সোলাইমানি হত্যার ‘চরম প্রতিশোধ’ নেয়ার ঘোষণা ইরাকের বিচার বিভাগীয় সর্বোচ্চ কর্তৃপক্ষ সুপ্রিম জুডিশিয়াল কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট ফায়িক্ব জাইদান বলেছেন, ট্রাম্প নিজেই দুই শীর্ষ কমান্ডারকে হত্যার নির্দেশ দেয়ায় তাদের হত্যা করা হয়। ওই হত্যাকাণ্ডে সংশ্লিষ্টতার ‘অপরাধে’ তার বিরুদ্ধে পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। জাইদান আরও বলেছেন, সন্ত্রাসবিরোধী যুদ্ধ জয়ের খ্যাতিমান কমান্ডারদের হত্যা করা ছিল এমন কাপুরুষোচিত অপরাধ যার কোনো আইনি ভিত্তি নেই। বিশ্লেষকরা বলছেন, ট্রাম্পকে গ্রেফতারের নির্দেশ এ জন্য গুরুত্বপূর্ণ যে এতে বোঝা যায়, যুক্তরাষ্ট্র সরকার নিজেদের সন্ত্রাসবিরোধী বলে দাবি করলেও বাস্তবে তারা সন্ত্রাসবিরোধী লড়াইয়ের নায়ক ও বীরদের হত্যা ও সন্ত্রাসীদেরই পক্ষে কাজ করছে। ইরাকি বিচার বিভাগের এ নির্দেশ দেশটির বিচার বিভাগের স্বাধীনতা ও শক্তিমত্তাও তুলে ধরেছে। আরও পড়ুন: জরুরি বৈঠকে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের উদ্বেগ ট্রাম্পকে গ্রেফতারে পরোয়ানা জারির ইরাকি নির্দেশ মূলত ইরানি বিচার বিভাগের সঙ্গে সমন্বয় করে দেয়া হয়েছে। ইরানের বিচার বিভাগের আন্তর্জাতিক বিষয় শাখার উপপ্রধান কাশেম গারিবাবাদি জেনারেল সোলাইমানি ও তার সহযোগীদের হত্যার ঘটনা তদন্তে ইরাক ও ইরানের সহযোগিতার কথা তুলে ধরেছেন। গারিবাবাদি বলেছেন, দুদেশের এ সংক্রান্ত যৌথ কমিটি এ বিষয়ে তথ্য ও দলিল-প্রমাণ বিনিময় করে আসছে। ফলে এ সংক্রান্ত তদন্ত আগের চেয়েও বেশি পরিপূর্ণ হচ্ছে। ইরানের মানবাধিকার সংস্থা ও বিচার বিভাগ সোলাইমানি হত্যার ঘটনায় ৯৪ জন মার্কিন কর্মকর্তা জড়িত বলে উল্লেখ করেছে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply