Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » » ‘নেপালে বিধ্বস্ত বিমানে কোনো বাংলাদেশি ছিলেন না’




নেপালের পোখারায় ৭২ আরোহী নিয়ে বিধ্বস্ত বিমানের ধ্বংসাবশেষ থেকে এ পর্যন্ত ৪৫টি মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তবে ওই বিমানে কোনো বাংলাদেশি ছিলেন না বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। রোববার (১৫ জানুয়ারি) সকালে ইয়েতি এয়ারলাইনসের বিমানটি পোখারার কাসকি জেলায় বিধ্বস্ত হয়। সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস জানিয়েছে, ৬৮ জন যাত্রী ও ৪ জন ক্রু নিয়ে বিমানটি নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডু থেকে পর্যটন অঞ্চল পোখারায় যাচ্ছিল। নেপালের স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, বিমানের মোট ৭২ আরোহীর মধ্যে ১৫ জন ছিলেন বিদেশি। তবে তাদের মধ্যে কোনো বাংলাদেশি নেই। আরও পড়ুন: নেপালে বিমান বিধ্বস্ত, নিহত বেড়ে ৪৫ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পোখারা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের প্রধান বিক্রম গৌতম। তিনি জানান, ৬৮ যাত্রীর মধ্যে ৫৩ জন নেপালি, পাঁচজন ভারতীয়, চারজন রুশ, কোরীয় নাগরিক দুজন এবং অস্ট্রেলিয়া, আয়ারল্যান্ড, আর্জেন্টিনা ও ফরাসি নাগরিক ছিলেন একজন করে। কোনো বাংলাদেশি ওই বিমানে ছিলেন না। পোখারার এ দুর্ঘটনা ভয়াবহতার বিচারে নেপালের ইতিহাসে গত পাঁচ বছরের মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ বিমান দুর্ঘটনা। আরও পড়ুন: ল্যান্ড করার ১০ সেকেন্ড আগে বিধ্বস্ত হয় নেপালের বিমানটি এর আগে ২০১৮ সালের মার্চ মাসে বাংলাদেশের বেসরকারি বিমান পরিচালনাকারী সংস্থা ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনসের একটি বিমান কাঠমান্ডুতে বিধ্বস্ত হয়। ঢাকা থেকে কাঠমান্ডু যাওয়া ড্যাশ-৮ টার্বোপ্রপ বিমানটিতে মোট ৭১ জন যাত্রী ছিলেন। তাদের মধ্যে ৫১ জনই ওই দুর্ঘটনায় নিহত হন। সেই ঘটনার প্রায় পাঁচ বছর পর পোখারায় আবারও ভয়াবহ বিমান দুর্ঘটনা ঘটল।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply