Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » » জিদানকে ফ্রান্স ফুটবল প্রধানের অসম্মান, খেপেছেন এমবাপ্পে




জিদানকে ফ্রান্স ফুটবল প্রধানের অসম্মান, খেপেছেন এমবাপ্পে ছবি- সংগৃহীত ফ্রান্স জাতীয় দলের প্রধান কোচ হিসেবে ২০১২ সালে দায়িত্ব নিয়েছিলেন দিদিয়ের দেশম। প্রায় এক যুগ আগে দায়িত্ব নিয়ে ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপ জয় ও ২০২২ সালে দেশকে রানার্সআপ করেছিলেন তিনি। তাই ২০২৬ বিশ্বকাপ পর্যন্ত এই কোচের সঙ্গে চুক্তির মেয়াদ বাড়িয়েছে ফ্রান্স ফুটবল ফেডারেশন। দেশমের সঙ্গে নতুন করে চুক্তি না করলে জিনেদিন জিদান ফ্রান্সের নতুন কোচ হতে পারেন, এমন গুঞ্জন ভেসে বেড়াচ্ছিল বাতাসে। কিন্তু টানা দুটি বিশ্বকাপ ফাইনালে যে কোচ উঠতে পারেন, তার কদর বুঝে দেশমের সঙ্গে চুক্তি নবায়ন করেছে ফরাসি ফুটবল ফেডারেশন। বরং কদর না হলেই ব্যাপারটা অস্বাভাবিক লাগত। তবে ফ্রান্সের কোচ হওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করা ফ্রান্সের ফুটবল কিংবদন্তি জিদানকে নিয়ে ফরাসি ফুটবল ফেডারেশনের প্রধান নুয়েল লে গ্রায়েতের ন্যাক্কারজনক মন্তব্যেই মূলত তৈরি হয়েছে বিতর্ক। লে গ্রায়েত 'আরএমসি'র সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘আমি জানি জিদানকে (কোচ বানানোর ব্যাপার) নিয়ে কথা হচ্ছিল। তার অনেক সমর্থক আছে, কেউ কেউ দেশমের বিদায় চাইছিলেন। কিন্তু কে পারবে দেশমকে তীব্র তিরস্কার করতে? কেউই না।’ আরও পড়ুন : দেশমের সঙ্গে ফ্রান্সের নতুন চুক্তি, ব্রাজিলের কোচ হচ্ছেন জিদান! ফ্রান্স ফুটবল প্রধান আরও যোগ করেন, ‘জিদান ব্রাজিলের কোচ হবেন? তিনি যা খুশি, করতে পারেন। তাতে আমার কিছু যায় আসে না। আমি কখনও তার সঙ্গে দেখা করিনি। আমরা কখনও দেশমের সঙ্গে সম্পর্কচ্ছেদের কথা ভাবিনি। তিনি যেখানে চান, যে ক্লাবে ইচ্ছে যেতে পারেন। জিদান কি আমার সঙ্গে যোগাযোগ করেছিলেন? অবশ্যই না। উনি ফোন করলে আমি ধরতামও না।’ ১৯৯৮ সালের বিশ্বকাপে একক নৈপুণ্যে ফ্রান্সকে বিশ্বকাপ জেতান জিদান, ২০০০ সালে জেতেন ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপ। জিদানকে মনে করা হয় ফরাসি ফুটবলের কিংবদন্তি। তাই ফ্রান্স ফুটবল প্রধানের অসম্মানজনক এমন মন্তব্যে তোলপাড় লেগে গেছে সে দেশের ফুটবল অঙ্গনে। যা শুনে মুখ না খুলে থাকতে পারলেন না বর্তমান সময়ে ফ্রান্স জাতীয় দলের সবচেয়ে বড় তারকা কিলিয়ান এমবাপ্পেও। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে লে গ্রায়েতের নিন্দা করে পিএসজির তারকা এমবাপ্পে লিখেছেন, ‘জিদান মানেই ফ্রান্স। তার মতো একজন কিংবদন্তিকে কিছুতেই এভাবে অসম্মান করা যায় না।’ আরও পড়ুন- আন্তর্জাতিক ফুটবলের বর্ষসেরা কোচ বিশ্বকাপজয়ী স্কালোনি এদিকে ফ্রান্সের ক্রীড়ামন্ত্রী আমেলি ওদিয়া কাস্তেরা গ্রায়েতকে জিদানের কাছে ক্ষমা চাইতে বলেছেন। টুইটে ফেডারেশনের সভাপতি পদে ইনভার্টেড কমা ব্যবহার করে বলেন, ‘খেলার একজন কিংবদন্তিকে চূড়ান্ত লজ্জাজনক অপমান। যাতে আমরা সকলেই আহত। ফ্রান্সের একজন ক্রীড়া সংস্থার ‘প্রেসিডেন্টের’ এমন মন্তব্য করা উচিত নয়। অনুগ্রহ করে জিদানের কাছে ক্ষমা চেয়ে নিন।’






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply