Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » » ইসরাইলের কারাগারে ৪০ বছর, অতঃপর মুক্তি




ইসরাইলের কারাগারে ৪০ বছর, অতঃপর মুক্তি দীর্ঘ ৪০ বছর পর ইসরাইলের কারাগার থেকে মুক্তি পেলেন ফিলিস্তিনি অধিকার আন্দোলনের নেতা করিম ইউনিস। তেল আবিবের হাদারিম কারাগার থেকে বৃহস্পতিবার (৫ জানুয়ারি) সকালে তাকে মুক্তি দেয়া হয়েছে। খবর আল জাজিরার। মুক্তি পাওয়ার পর করিম ইউনিস। ছবি: সংগৃহীত মুক্তি পাওয়ার পর করিম ইউনিস। ছবি: সংগৃহীত আন্তর্জাতিক ডেস্ক ২ মিনিটে পড়ুন খবরে বলা হয়েছে, ওই অধিকারকর্মী যখন ইসরাইলের কারাগারে ঢোকেন তখন তিনি যুবক, জীবনের মূল্যবান ৪০টি বছর পার করেছেন কারাগারে। ১৯৮৩ সালে তার বিরুদ্ধে ইসরাইল অধিকৃত সিরিয়ান গোলান মালভূমিতে এক ইসরাইলি সেনাকে হত্যার অভিযোগ আনা হয়েছিল। ৪০ বছর ইসরাইলি কারাগারে কাটানোর পর মুক্তি পাওয়ায় খুশির অন্ত নেই স্বজন আর এলাকাবাসীর। করিম ইউনিসের মতো এত দীর্ঘ সময় কোনো ফিলিস্তিনি ইসরাইলের কারাগারে বন্দী থাকেননি। বর্তমানে তার বয়স ৬৬ বছর। মুক্তি পাওয়ার পর করিম ইউনিস তার মায়ের কবরের কাছে যান। তার মা আট মাস আগে মারা যান। গ্রামে ফিরে তিনি গণমাধ্যমকে বলেন, গত ৪০ বছর ধরে মুক্তির কথা ভেবেছি, যত বন্দি আছেন সবাই মুক্তির দিনটি নিয়েই স্বপ্ন দেখেন, স্বজন বন্ধুরা কিভাবে স্বাগত জানাবে এসবই ভাবেন। আমিও স্বপ্ন দেখেছি। তবে কখনও ভাবিনি আমার মুক্তির উদযাপন এত বড় হবে। আমি বলতে চাই, ইসরাইলিরা ফিলিস্তিনিদের দাস বানিয়ে রাখতে চায়, তাদের সে স্বপ্ন আমরা পূরণ হতে দেবো না।

জানা যায়, ইউনিসকে আজীবন কারাদণ্ড দেয়া হয়েছিল। পরে তার দণ্ড ৪০ বছর করা হয়। পূর্ণ মেয়াদকাল শেষ হওয়ার পর কারাগার থেকে তাকে মুক্তি দেয়া হলো। তার বাড়ি ইসরাইলের অভ্যন্তরের আরা নামের একটি ফিলিস্তিনি গ্রামে। ইউনিসকে মুক্তি দেয়ার আগে ইসরাইলের সামরিক গোয়েন্দারা তার বাড়ি পরিদর্শন করেন। তার মুক্তি উপলক্ষে কোনো ধরনের উদযাপনের ওপর নিষেধাজ্ঞা দেন তারা। তবে ইউনিসের পরিবার, বন্ধু ও গ্রামবাসী কোনো নিষেধাজ্ঞার তোয়াক্কা করেননি। তাকে স্বাগত জানাতে জড়ো হন বহু মানুষ।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply