Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

সাম্প্রতিক খবর


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

mujib

w

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » ইউক্রেনকে ১০ কোটি মার্কিন ডলার সহায়তা দেবে কাতার




শিক্ষা, স্বাস্থ্যখাত ও যুদ্ধের মাইন অপসারণের জন্য ইউক্রেনকে ১০ কোটি মার্কিন ডলার সহায়তা দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে কাতার। শুক্রবার (২৮ জুলাই) ইউক্রেনের প্রধানমন্ত্রী ড্যানিস শিমহালের সঙ্গে কাতারের প্রধানমন্ত্রী শেখ মোহাম্মাদ বিন আবদুল রহমান আল থানির বৈঠকের পর এ ঘোষণা দেয়া হয়। খবর রয়টার্সের। কিয়েভে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির সঙ্গে বৈঠক করেছেন কাতারের প্রধানমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ বিন আব্দুর রহমান। ছবি: সংগৃহীত চলমান যুদ্ধের মধ্যেই আকস্মিক কিয়েভ সফর করছেন কাতারের প্রধানমন্ত্রী শেখ মোহাম্মাদ বিন আবদুল রহমান আল থানি। শুক্রবার তিনি ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি এবং প্রধানমন্ত্রী ড্যানিস শিমহালের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বৈঠকে দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতা সম্পর্কে পর্যালোচনা, রাশিয়া-ইউক্রেন সংকট এবং শান্তিপূর্ণভাবে সমাধানের উপায় নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে আলোচনা হয়েছে। এছাড়া তারা আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক বিভিন্ন ইস্যুতেও মতবিনিময় করেন। বৈঠকে ইউক্রেনকে ১০ কোটি মার্কিন ডলার মানবিক সহায়তার ঘোষণা দেন কাতারের প্রধানমন্ত্রী। এ অর্থ ইউক্রেনের শিক্ষা ও স্বাস্থ্যখাতসহ যুদ্ধের মাইন অপসারণে ব্যবহার করা হবে। আরও পড়ুন: প্রিগোজিন এখন রাশিয়ায় এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে ইউক্রেনের প্রধানমন্ত্রীবলেছেন, এই অর্থ স্বাস্থ্য ও শিক্ষা খাতে পুনর্গঠন, মাইন অপসারণ এবং অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ সামাজিক ও মানবিক প্রকল্পের জন্য ব্যবহার করা হবে। এদিকে শুক্রবার রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় তাগানরগ শহরে বেশ কয়েকটি ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানো হয়েছে। এসব ক্ষেপণাস্ত্র সফলভাবে ভূপাতিত করা হলেও এর ধ্বংসাবশেষের আঘাতে বেশকয়েকজন আহত হয়েছেন। এতে শহরের একটি জাদুঘর ও রেস্তোরাঁ ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এছাড়া কয়েকটি আবাসিক ভবনও ক্ষতিগ্রস্ত হয় বলে জানিয়েছেন শহরটির মেয়র। এ ক্ষেপণাস্ত্র হামলার জন্য ইউক্রেনকে দায়ী করেছে রুশ কর্তৃপক্ষ। তবে এ বিষয়ে এখনও কোনো মন্তব্য করেনি ইউক্রেন। আরও পড়ুন: পুতিনের কাছ থেকে হেলিকপ্টার উপহার পেলেন জিম্বাবুয়ে প্রেসিডেন্ট ইউক্রেনের উপ-প্রতিরক্ষামন্ত্রী হানা মালিয়ার জানিয়েছেন, দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় বাখমুত, মেলিতোপোল, বেরদিয়ানস্কসহ বেশ কয়েকটি যুদ্ধক্ষেত্রে তারা অগ্রসর হয়েছে। এছাড়া কয়েকটি অঞ্চলে এখনও তীব্র লড়াই চলছে বলে জানান তিনি।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply