Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

সাম্প্রতিক খবর


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

mujib

w

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » স্বাধীনতার খোঁজে’ চীনা যুবকের অদ্ভুত কাণ্ড




তাইওয়ানে পাড়ি জমিয়েছেন এক চীনা যুবক। ১০ ঘণ্টা সাতার কেটে চীনের ফুজিয়ান প্রদেশ থেকে তাইওয়ানের মাৎসু দ্বীপে গিয়েছেন ওই যুবক। তবে অবৈধ অনুপ্রবেশের দায়ে ওই যুবককে আটক করেছে তাইওয়ান কর্তৃপক্ষ। ‘স্বাধীনতার খোঁজে’ তিনি এমন কাণ্ড ঘটিয়েছেন বলে জানিয়েছেন। চীনের ফুজিয়ান প্রদেশ থেকে তাইওয়ানের মাৎসু দ্বীপ। ছবি: সংগৃহীত দ্য ইন্ডিপেনডেন্টের প্রতিবেদন মতে, ৪০ উর্ধ্ব বয়সী ওই চীনা নাগরিক গত ২৪ জুলাই ফুজিয়ান প্রদেশ থেকে সাতার কেটে পূর্ব চীন সাগর পাড়ি দিয়ে তাইওয়ানের মাৎসু দ্বীপের উদ্দেশে রওনা হন। তবে পথিমধ্যে মৌমাছি দ্বারা আক্রান্ত হন। এ সময় তাকে পর্যটকদের সহায়তা নিতে হয়েছিল। প্রতিবেদনে বলা হয়, সাগর পাড়ি দিয়ে তিনি যখন তাইওয়ানের মাৎসু দ্বীপে গিয়ে ওঠেন, তখন দেশটির কর্তৃপক্ষ তাকে আটক করে এবং তাকে চিকিৎসার জন্য স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে যায়। সিএনএ এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, গত ২৪ জুলাই স্থানীয় সময় সকাল ৮টার দিকে ওই চীনা যুবক মাৎসু দ্বীপের বেইগান শহরের একটি ব্রডকাস্টিং স্টেশনের কাছে পর্যটকেদের সাহায্য চেয়েছিলেন। আরও পড়ুন: টাইফুন খানুন /জাপানে শত শত ফ্লাইট বাতিল, হাজারো মানুষকে সরে যাওয়ার আহ্বান সাগর পাড়ি দেয়ার সময় সঙ্গে শুকনা খাবার, কাপড় ও ওষুধের মতো প্রয়োজনীয় জিনিস নিয়েছিলেন যুবক। পরে এক বিবৃতিতে এভাবে তাইওয়ান পাড়ি দেয়ার কারণ জানিয়ে তিনি বলেন, তিনি জানতেন, এটা ‘একটা বিপজ্জনক যাত্রা’। এরপরও ‘স্বাধীনতার খোঁজে’ চীন ত্যাগ করে তাইওয়ানে পাড়ি জমান। তাইওয়ানকে নিজেদের অংশ বলে মনে করে চীন। অন্যদিকে নিজেদের স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে দাবি করে আসছে স্বায়ত্তশাসিত দ্বীপটি। গেল বছর মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের সাবেক স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির তাইওয়ান সফরকে কেন্দ্র করে তাইওয়ান প্রণালি ঘিরে চীন ও তাইওয়ানের মধ্যে দিন দিন বেড়েই চলেছে তুমুল উত্তেজনা। সম্প্রতি চীন ও তাইওয়ানের মধ্যকার উত্তেজনার মধ্যে দক্ষিণ চীন সাগরে মার্কিন রণতরী প্রবেশ করেছে। মার্কিন ইন্দো-প্যাসিফিক কমান্ডের এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘সমুদ্রের স্বাধীনতা’র প্রতি জোর দিতে এই অপারেশন চালানো হচ্ছে।’ আরও পড়ুন: চীনের সামরিক বাহিনীতেও এবার বড় রদবদল অন্যদিকে চীনের আটটি বোমারু ও চারটি ফাইটার জেট বিমান তাইওয়ানের দক্ষিণ-পশ্চিমের বিমান প্রতিরক্ষা শনাক্তকরণ অঞ্চলে অনুপ্রবেশ করে। তাইওয়ানে এতগুলো চীনা যুদ্ধবিমানের অনুপ্রবেশ বেশ বিরল ঘটনা বলে জানায় দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply