Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

সাম্প্রতিক খবর


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

mujib

w

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » শপথ নিলেন ৬২ স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য




শপথ নিচ্ছেন ৬২ স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য। ছবি : বিটিভির সৌজন্যে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয়ী ৬২ জন স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য শপথ নিয়েছেন। আজ বুধবার (১০ জানুয়ারি) বেলা ১১টায় সংসদ ভবনের শপথকক্ষে তাদের শপথ পড়ান স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। এর আগে নতুন স্বতন্ত্র সংসদ সদস্যরা সংসদ ভবনে আসেন। আজ বুধবার (১০ জানুয়ারি) সকাল সোয়া ১০টার দিকে শপথ অনুষ্ঠানের শুরুতেই স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী নিজে শপথ নেন। পরে আওয়ামী লীগের ২২২ জন সংসদ সদস্যকে শপথবাক্য পাঠ করান তিনি। শেরেবাংলা নগরে সংসদ ভবনের পূর্ব ব্লকের প্রথম লেভেলের শপথকক্ষে এ শপথগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। সংসদ সচিবালয়ের সিনিয়র সচিব এ কে এম আব্দুস সালাম শপথ পরিচালনা করেন। এবারের নির্বাচনে বেশির ভাগ স্বতন্ত্র প্রার্থী, যারা অনেকেই আবার আওয়ামী লীগের। নৌকার মনোনয়ন না পেয়ে তারা স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। এতে স্বতন্ত্র থেকে পাস করেছেন ৬২ জন। দেশের নির্বাচনের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো এমন ঘটনা ঘটলো। আওয়ামী লীগের সাবেক সংসদ সদস্য পঙ্কজ দেবনাথ এবার স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করে বিজয়ী হয়েছেন। স্বতন্ত্রপ্রার্থী হিসেবে সংসদে আপনাদের অবস্থান কেমন হবে সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের উত্তরে পঙ্কজ দেবনাথ বলেন, আমি আগেই বলেছি দলের সিদ্ধান্তেই এই দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিয়েছি। আমাদের অভিভাবক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সুতরাং দল যেভাবে বলবে সেভাবেই আমরা কাজ করব। পঙ্কজ দেবনাথ আরও বলেন, সংসদ নির্বাচন সফল হয়েছে। গণতন্ত্রের বিজয় হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানাই। তার সাহসী নেতৃত্বের মাধ্যমে গণতন্ত্র এবং সংবিধান সমুন্নত রয়েছে। যোগ্য নেতৃত্ব দিয়ে তিনি দেশ পরিচালনা অব্যাহত রেখেছেন। সংসদে বিরোধী দল নেই, আপনাদের (স্বতন্ত্র) ভূমিকা কি হবে? এমন প্রশ্নের উত্তরে হবিগঞ্জ-৪ আসনে স্বতন্ত্র হিসেবে নির্বাচিত সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন বলেন, ‘বিরোধী দল নেই, আপনি স্বতন্ত্রের প্রেসারেই থাকতে পারবেন কিনা দেখেন।’ এসব কাজে কি চ্যালেঞ্জ থাকবে জানতে চাইলে সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন বলেন, এসব কাজে অসংখ্য চ্যালেঞ্জ থাকবে। একটা দুইটা না। বাংলাদেশে কাজ তো কেউই করতে চায় না। তারপরও যদি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুনজর থাকে তাহলে আমি অনেকটুকু পাড়ি দিতে পারব।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply