Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

সাম্প্রতিক খবর


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

mujib

w

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » সিরিজ জয়ের ম্যাচে বাংলাদেশের সামনে চ্যালেঞ্জিং লক্ষ্য




বাংলাদেশ বনাম শ্রীলঙ্কা ম্যাচ। ছবি : এএফপি জিতলেই সিরিজ নিজেদের করে নেবে বাংলাদেশ। ফাইনালে পরিণত হওয়া তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডেতে শ্রীলঙ্কাকে অল্পতে থামাল নাজমুল হোসেন শান্তর দল। আগে ব্যাট করে বেশিদূর যেতে পারেনি লঙ্কানরা। তবে, জানিথ লিয়ানাগের ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরিতে বাংলাদেশকে চ্যালেঞ্জিং লক্ষ্য ছুঁড়ে দিয়েছে দলটি। চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে আজ সোমবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) টস জিতে আগে ব্যাটিংয়ে নামে শ্রীলঙ্কা। ৫০ ওভারে সবকটি উইকেট হারিয়ে ২৩৫ রান তোলে দলটি। ব্যাট হাতে সর্বোচ্চ ১০১ রান করেন লিয়ানাগে। ব্যাটিংয়ে শুরুটা ভালো হয়নি লঙ্কানদের। দ্বিতীয় ওভারেই তাসকিনের বলে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়ে বিদায় নেন ওপেনার পাথুম নিশাঙ্কা। গত ম্যাচে দারুণ এক সেঞ্চুরি হাঁকালেও এই ম্যাচে তার ব্যাট থেকে আসে আট বলে মাত্র এক রান। যদিও পরে টিভি রিপ্লেতে দেখা যায় রিভিউ নিলে বেঁচে যেতেন নিশাঙ্কা। নিশাঙ্কার পর আরেক ওপেনার আভিস্কা ফার্নান্দোও নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি। দলীয় ১৫ রানের মাথায় তাসকিনের দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হন এই ব্যাটার। তাসকিনের করা গুড লেন্থ ডেলিভারিতে উইকেটের পেছনে মুশফিকের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন তিনি। ছয় বলে চার রান আসে তার ব্যাট থেকে। দ্রুত দুই উইকেট হারানোর ধাক্কা সাদিরা সামারাবিক্রমা ও কুশল মেন্ডিসের ব্যাটে সামাল দেওয়ার চেষ্টা করে লঙ্কানরা। এই জুটি আশা দেখালেও তা খুব একটা বড় হয়নি। দলীয় ৪৫ রানের মাথায় দুই ম্যাচ পর একাদশে সুযোগ পাওয়া মুস্তাফিজুর রহমানের বলে মুশফিকের হাতে ক্যাচ তুলে ফেরেন সাদিরা। ১৫ বলে ১৪ রান আসে এই তার ব্যাট থেকে। এরপর চারিথ আসালাঙ্কাকে নিয়ে দলকে এগিয়ে নেন মেন্ডিস। এবারও জুটি বড় করতে ব্যর্থ লঙ্কানরা। দলীয় ৭৪ রানের মাথায় রিশাদের বলে ফেরেন ম্যান্ডিস। ৫১ বলে ২৯ রান করেন ডানহাতি এই ব্যাটার। এরপর জেনিথ লিয়ানাগেকে নিয়ে চাপ সামাল দেন আসলাঙ্কা। তবে, তিনিও বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি। দলীয় ১১৭ রানের মাথায় মুস্তাফিজের ব্যাক অফ লেন্থ ডেলিভারিতে কাট করতে গিয়ে মুশফিকের হাতে ধরা পড়েন আসালাঙ্কা। ৪৬ বলে ৩৭ রান আসে তার ব্যাট থেকে। দুনিথ ভেল্লালাগে ও ওয়ানিন্দু হাসারাঙাকে ফিরিয়ে দলটিকে সর্বশেষ ধাক্কা দেন মেহেদী হাসান মিরাজ। ভেল্লালাগেকে সৌম্য সরকারের ক্যাচে পরিণত করেন মিরাজ। আউট হওয়ার আগে ১৮ বল খেলে মাত্র এক রান করেন ভেল্লালাগে। আট বলে ১১ রান করে বিপজ্জনক হওয়ার আভাস দেওয়া হাসারাঙাকে বোল্ড করেন মিরাজ। শেষ দিকে লঙ্কানদের পক্ষে একা লড়াই চালিয়ে যান লিয়ানাগে। তুলে নেন ওয়ানডে ক্যারিয়ারের প্রথম শতক। শেষ পর্যন্ত ১০২ বলে ১১ চার ও দুই ছক্কায় ১০১ রানে অপরাজিত থাকেন লিয়ানাগে। শ্রীলঙ্কাকে এনে দেন লড়াইয়ের পুঁজি। বাংলাদেশের পক্ষে তিন উইকেট নেন তাসকিন।মুস্তাফিজ ও মিরাজ পান দুটি করে উইকেট। সংক্ষিপ্ত স্কোর শ্রীলঙ্কা : ৫০ ওভারে ২৩৫/৯ (নিশাঙ্কা ১, ফার্নান্দো ৪, কুশল ২৯, সাদিরা ১৪, আসালাঙ্কা ৩৭, লিয়ানাগে ১০১* , ভেল্লালাগে ১, হাসারাঙা ১১, থিকসানা ১৫, প্রমোদ ৩, কুমারা ১; শরিফুল ১০-০-৫৫-০, তাসকিন ১০-১-৪২-৩ , মুস্তাফিজ ৯-১-৩৯-২, সৌম্য ২-০-১০-১, মিরাজ ১০-১-৩৮-২, রিশাদ ৯-০-৫১-১)






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply