sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » ইতালিতে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত বাড়ছে জরুরি অবস্থা




  ইতালিতে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত বাড়ছে জরুরি অবস্থা

ইতালিতে জরুরি অবস্থা আগামী ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত থাকবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী জুসেপ্পে কন্তে। শুক্রবার (১০ জুলাই) একটি অনুষ্ঠানে এমনই ঘোষণা দেন কন্তে।

করোনা মহামারি আগ্রাসনের প্রথম দিকে ২০২০ সালের ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত জরুরি অবস্থা জারির ঘোষণা করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী কন্তে। ২০২০ সালের পহেলা ফেব্রুয়ারি তা কার্যকর হয়। ছয় মাসের এই জরুরি অবস্থাকে এখন বৃদ্ধিকরে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত বাড়ানোর কথা  চিন্তা করছে সরকার। জরুরি অবস্থা প্রসারিত করার সিদ্ধান্ত নেয়া হলে আপনারা অবাক হবেন না। এক প্রেস কনফারেন্সে তিনি সাংবাদিকদের কথাগুলো বলেছিলেন ।

তিনি আরও বলেন, আমরা যদি জরুরি অবস্থা বাড়িয়ে না রাখি তবে আমাদের আর উপায় থাকবে না এবং নজরদারি চালিয়ে যাওয়া, প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া ও সরঞ্জামাদির জন্য যাতে সহজে হস্তক্ষেপ করতে সক্ষম হয় সরকার তার ব্যবস্থা করে রাখা।

প্রধানমন্ত্রী কন্তে বলেন, আমরা যুক্তিসঙ্গতভাবে জরুরি অবস্থা বাড়ানোর দিকে এগিয়ে যাচ্ছি। মন্ত্রিপরিষদকে অবশ্যই সম্মিলিতভাবে পদক্ষেপ নিতে হবে। যুক্তিসঙ্গতভাবে জরুরি অবস্থা অব্যাহত রাখার শর্ত রয়েছে। আমাদের অবশ্যই ভাইরাসকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে।

ইতালির বিভিন্ন অঞ্চলে সংক্রমণ এখনও বাড়ছে বলে প্রধানমন্ত্রী বলেন,  যে পাঁচটি অঞ্চলের একটি এমিলিয়ো রোমানিয়া (বলনিয়া ১.২) ভেনেতো (ভেনিস ১.২), তুসকানা (ফ্লোরেন্স ১.১৭), লাজিও (রোম ১.০১) এবং পিউমন্তে ১.০৬। এরবাইরে লুম্বারদিয়া (মিলান) সবচেয়ে খারাপ অবস্থায় এখনও চলমান আছেই।

প্রযুক্তিগত বৈজ্ঞানিক কমিটি এবং স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে জরুরি অবস্থা বৃদ্ধির দিকনির্দেশের দিকে এগিয়ে যাওয়ার কথাও বলা হয়েছে। তাই সকল তথ্য ও সংবাদগুলিকে মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে পাশ করিয়ে চূড়ান্ত সিদ্বান্তে পৌঁছাবে সরকার। এটা করোনার দ্বিতীয় তরঙ্গের আশঙ্কাকে ঠেকিয়ে দিতে সরকারের আগাম প্রচেষ্টা। এখন মন্ত্রিপরিষদের একটি নতুন রেজোলিউশন প্রয়োজন।
াখেরও বেশি বাংলাদেশিকে

বর্তমানে এই এক্সটেনশনটি আগামী সপ্তাহের প্রথম দিকে আসতে পারে বলে বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে। ১৪ জুলাই বর্তমান ডিপিএমসিএমের মেয়াদ শেষ হবে; যার মধ্যে রয়েছে ইতালিতে প্রবেশের পদ্ধতি এবং ক্রুজ শিপগুলোর স্থগিতকরণ অধ্যাদেশ।

সরকারি সূত্র হতে জানা যায়, যে এটি খুব সম্ভাবনাময় অধ্যাদেশের আলোকে জরুরি অবস্থার সম্প্রসারণকে সংজ্ঞায়িত করার ব্যবস্থা করা এবং অনেকগুলো নিয়ম পরিবর্তন করে, বর্তমানে সহজ প্রয়োগ করে নিয়মগুলিকে পুনর্বিন্যাস এবং ইতালিতে প্রবেশের পদ্ধতিগুলির একটি "সিস্টেমাইজেশন" করার সুযোগ সৃস্টি করা। সার্বিকভাবে অনেকগুলো সিস্টেমের সহজ করে পরিবর্তন এনে সার্বিক অবস্থার উন্নত করা। তবে জরুরি অবস্থাকে বহাল রাখা হবে যাতে সহজে কর্ম কৌশল চালিয়ে যাওয়া যায়।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply