sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » মেসি এখন আর্জেন্টিনায় সুখী, বার্সায় দুঃখী




কমপক্ষে হাজারবার উচ্চারিত হয়েছে কথাটা, বার্সেলোনার মেসি আর্জেন্টিনার নন। সমালোচকরা বলে থাকেন, ক্লাবের হয়ে যেভাবে নিজের সর্বস্ব ঢেলে দেন বার্সার মেসি, জাতীয় দলে তার অর্ধেকও দিলে আর্জেন্টিনার নামের পাশে আরেকটা বিশ্বকাপ থাকত। জাতীয় দল সতীর্থদের সঙ্গে যোগাযোগ বিমুখতা, অভ্যন্তরীণ সমস্যা, নিজের সেরাটা দিতে না পারা- সবমিলিয়ে জাতীয় দলে সুখ খুঁজে পান না ছয়বারের ব্যালন ডি’অরজয়ী ফরোয়ার্ড, এ যেন পশ্চিমে সূর্য ডোবার মতো ধ্রুব সত্য! আর্জেন্টিনার হয়ে কোনো আন্তর্জাতিক শিরোপা জিততে না পারা সেটাই বলে। বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন করোনা মহামারীতে ওলট-পালট হয়ে গেছে বিশ্ব, পাল্টে গেছে চিরচেনা পরিস্থিতি। আবার এটিই যেন আশীর্বাদ হয়ে এসেছে আর্জেন্টিনার জন্য। মহামারীর সময়ে ক্লাবের সঙ্গে দূরত্ব বেড়েছে মেসির, সুখ কেড়ে নিয়েছে ৩৩ বছর বয়সী ফরোয়ার্ডের। সেই সুখ খুঁজতে আর্জেন্টাইন সতীর্থদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা বেড়েছে তার, সুফলও মিলেছে। বলিভিয়াসহ বিশ্বকাপ বাছাইয়ে প্রথম দুই ম্যাচে জয় যেন সেটার নমুনা। বার্সার সঙ্গে মেসির দূরত্ব বেড়েছে চলতি বছরের শুরু থেকেই, আর্নেস্টো ভালভার্দের কোচের পদ থেকে ছাঁটাই হবার পর। পরে খেলোয়াড়দের বেতন কেটে নেয়া, সভাপতির সঙ্গে দ্বন্দ্ব, চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বায়ার্নের বিপক্ষে লজ্জার হার, সবশেষ লুইস সুয়ারেজের বিদায়; চিরচেনা ন্যু ক্যাম্পে মেসি আজ বড্ড একা! এমনকি ম্যাচে গোলের পর সেই আগের মতো উচ্ছ্বাস নিয়েও উদযাপন করতে দেখা যায় না তাকে। এই পরিবর্তনটা গেছে আর্জেন্টিনার পক্ষে। বার্সায় একাকীত্ব দূর করতে অতীতের তুলনায় মেসি এখন অনেকবেশি সতীর্থদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ। আরেকটা কারণ হতে পারে, বর্তমান দলটা খুব বেশি মেসির উপর নির্ভরশীলও নয়। বর্তমান কোচ লিওনেল স্কালোনি বয়সে তরুণ হওয়ায় খুব সহজেই খেলোয়াড়দের সঙ্গে মিশতে পারছেন, একইসঙ্গে কমিয়ে আনছেন মেসি নির্ভরশীলতাও। এতে চাপ কমেছে অধিনায়কের, নিজের মতো স্বাধীনভাবে তৈরি করতে পারছেন খেলা। অতীতের বছরগুলোতে যা ভাবাও যেত না, সেটাই এখন ঘটছে। মেসি ছাড়াও দলকে জেতানোর মতো ফরোয়ার্ড আছে আলবিসেলেস্তেদের। মেসির এমন ১৮০ ডিগ্রী ইউ-টার্ন যদি আর্জেন্টিনা ভক্তদের জন্য সুখের হয়, তাহলে আবার বার্সার জন্য ভয়ের। অতীতের রেকর্ড বলে মেসি কখনোই একসঙ্গে দুই দলকে নিজের সেরাটা দিতে পারেননি। আর্জেন্টিনা যদি তাদের অধিনায়কের সেরাটা বের করে আনতে পারে, তাহলে সেটা বার্সার জন্য হুমকি হতে পারে! বার্সা ভক্তরা হয়ত এখন প্রার্থনায় থাকবেন, দ্রুতই যেন ন্যু ক্যাম্পে পুরনো সুখ খুঁজে পান এলএম টেন। সেটা আর্জেন্টিনায় খুঁজে পাওয়া সুখ সহই।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply