sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » তুরমতি বাজ (ইংরেজি: Red-necked Falcon)[82]




মহসিন আলী আঙ্গুর// তুরমতি বাজ

প্রায়-বিপদগ্রস্ত (আইইউসিএন ৩.১)[১] বৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস জগৎ: Animalia পর্ব: কর্ডাটা শ্রেণী: পক্ষী বর্গ: Falconiformes পরিবার: Falconidae গণ: Falco প্রজাতি: F. chicquera দ্বিপদী নাম Falco chicquera Daudin, 1800 Subspecies See text FalcoChicqueraRuficollisMap.svg প্রতিশব্দ Turumtia chicquera Blyth, 1863[২] * Chicquera typus Bonaparte, 1854 * Aesalon chicquera Blanford, 1895 তুরমতি বাজ (ইংরেজি: Red-necked Falcon) বা শিরেল পাখি নামেও পরিচিত। Falconidae পরিবারের দুঃসাহসী বাজটির বৈজ্ঞানিক নাম Falco chicquera। বাংলাদেশ বার্ড ক্লাব কর্তৃপক্ষ এই পাখিকে ‘লাল ঘাড় শাহিন’ হিসেবে নামকরণ করলেও বাংলাদেশের বিভিন্ন এলাকায় এটি ‘তুরমতি বাজ’ নামে অধিক পরিচিত।[৩] দক্ষিণ এশিয়ায় পাখিটি বিরল এবং বর্তমানে সারাবিশ্বেও প্রায় সংকটাপন্ন হিসেবে বিবেচিত।[৪] বর্ণনা তারের উপর একটি তরুণ তুরমতি বাজ তুরমতি মাঝারি আকারের পাখি। ঠোঁটের আগা থেকে লেজের ডগা পর্যন্ত লম্বায় ৩১-৩৬ সেন্টিমিটার। ওজনে পুরুষ ১৩৯-১৭৮ ও স্ত্রী ১৯০-৩০৫ গ্রাম। স্ত্রী পাখি পুরুষ পাখির চেয়ে বড় হয়। প্রাপ্তবয়স্ক পাখির ঘাড় ও মাথা পোড়ামাটির মতো লাল। ছাই-সাদা বুকে ছোট ছোট কালো ছিট। সাদা পেটে আড়াআড়ি চিকন কালচে দাগ। লেজের আগা কালো। পিঠ ধূসর, তার ওপরে নীল রঙের পলিশ করা। চোখ বাদামি। চোখের চারদিক, পা ও আঙুল হলুদ। নখ কালো। ঠোঁট হলুদ ও আগা কালো। স্ত্রী ডিমে ৩২-৩৫ দিন তা দিয়ে বাচ্চা ফোটায়। বাবা শিকার করে আনে ও মা সেই শিকার ঠোঁট দিয়ে ছিঁড়ে ছিঁড়ে বাচ্চাদের খাওয়ায়। বাচ্চারা প্রায় ৪৮ দিনে স্বাবলম্বী হয় ও নীল আকাশে ডানা মেলে। তুরমতি বাজের স্থির চিত্র, বঙ্গ প্রদেশ থেকে সংগৃহীত (১৭৯৯) [৫] স্বভাব ও খাদ্যাভ্যাস তুরমতি বাজ লোকালয়, পতিত জমি, ধানক্ষেতসহ খোলা প্রান্তরে ঘুরে বেড়ায়। শিকারি পাখি বড় বড় গাছ, বড় বড় স্থাপনা বা বিদ্যুতের বড় খুঁটির ওপর বসে চারদিকে খেয়াল করে। গাছের উঁচু ডাল কিংবা বিদ্যুতের তারে বসে শিকার খুঁজতে থাকে। সাধারণত ওরা আকাশে উড়ন্ত অবস্থায়ই শিকার ধরে। মূলত চড়ুই, খঞ্জনসহ ছোট ছোট পাখি ধরে খায়। এ ছাড়া বাদুড়, চামচিকা, ইঁদুর প্রভৃতি প্রাণীও ওদের খাদ্য তালিকায় রয়েছে। ওদের কর্মচঞ্চলতা খুব বেশি থাকে ভোরে এবং সন্ধ্যার ঠিক আগে।[৩] তথ্যসূত্র BirdLife International (২০১২)। "Falco chicquera"। বিপদগ্রস্ত প্রজাতির আইইউসিএন লাল তালিকা। সংস্করণ 2013.2। প্রকৃতি সংরক্ষণের জন্য আন্তর্জাতিক ইউনিয়ন। সংগ্রহের তারিখ ২৬ নভেম্বর ২০১৩। "Catalogue of the Birds of India, with remarks on their geographical description"। Ibis। 5 (17): 1–31। ১৮৬৩। ডিওআই:10.1111/j.1474-919x.1863.tb06042.x।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply