sponsor

sponsor


Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » ফের বলিউডে দীপিকা-সঞ্জয়লীলা জুটি? 'বৈজু বাওরা'-র চিত্রনাট্য তৈরিতে ব্যস্ত পরিচালক!




ফের বলিউডে দীপিকা-সঞ্জয়লীলা জুটি? 'বৈজু বাওরা'-র চিত্রনাট্য তৈরিতে ব্যস্ত পরিচালক! ফের বলিউডে দীপিকা-সঞ্জয়লীলা জুটি? 'বৈজু বাওরা'-র চিত্রনাট্য তৈরিতে ব্যস্ত পরিচালক! নিজস্ব প্রতিবেদন: 'রামলীলা', 'বাজিরাও মস্তানি', 'পদ্মাবত'। একের পর এক হিট ছবি। লার্জার দ্যান লাইফ ক্যানভাস। যেন বড়পর্দার প্রতিটি দৃশ্যে আঁকা হচ্ছে ছবি। বুঝতেই পারছেন কার কথা বলছি। হ্যা সঞ্জয় লীলা বনশালি। তিনি আপাতত মন দিয়েছেন তাঁর পরের ছবির চিত্রনাট্যে। জানতে ইচ্ছে করছে নিশ্চয়ই, তাঁর পরের ছবিতে কোন ঐতিহাসিক চরিত্র উঠে আসবে? এবার তিনি তৈরি করবেন ‘বৈজু বাওরা’। আর অবশ্যই ডিম্পল ক্যুইন তাঁর তুরুপের তাস। সম্প্রতি এই খবর প্রকাশ্যে আসে।

শোনা যাচ্ছে ফের পরিচালক-অভিনেত্রী জুটির কাজ পর্দায় দেখতে চলেছেন দর্শক। ডাকাতরানি রূপমতির চরিত্রে দীপিকাকেই চেয়েছেন পরিচালক। দিপীকাও রাজি হয়েছেন শোনা যাচ্ছে। দাপুটে চরিত্রে অভিনয়ের সুযোগও থাকে, আর নতুন নতুন চরিত্র নিয়ে এক্সপেরিমেন্ট করতে ভালবাসেন দীপিকা (Deepika Padukone)। স্বাভাবিকভাবেই তাঁর কাছেও এটি পাওনা। ছবির চরিত্র নির্ধারনের কাজ চলছে। কাস্টিংয়ের দিকে বরাবরই জোড় দেন বনশালি (Sanjay Leela Bhansali)। এবারও তার অন্যথা হবে না। ১৯৫২ সালে কুলদ্বীপ কওর ডাকাত রানির চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। সেই চরিত্রেই এবার দেখা যাবে দীপিকাকে। ভরত ভূষণকে দেখা গিয়েছিল বৈজু বাওরার চরিত্রে। সেই ভূমিকায় কাকে দেখা যায় সেটাই এখন দেখার। ১৯৫২ সালের উনসত্তর বছর পর ফের ওই চরিত্রগুলোকে বনশালি ম্যাজিকে জীবন্ত করে তোলা হবে । আকবর, গৌরী ও তানসেন অন্যমত উল্লেখযোগ্য চরিত্র, তাই তাঁদের বাছাইয়ের ক্ষেত্রেও খুঁতখুতে পরিচালক। তবে তাঁর প্রায়োরিটি লিস্ট দেখলে আন্দাজ করা যায় তালিকায় থাকতে পারেন আলিয়া ভাট, রণবীর সিং। আপাতত তিনি 'গঙ্গুবাঈ কাঠিয়াওয়াড়ি' ছবির কাজ নিয়ে ব্যস্ত। এরপর শাহরুখের সঙ্গে 'ইজহার' ছবির কাজে হাত দেওয়ার কথা ছিল তাঁর। তবে শোনা যাচ্ছে আপাতত তা পিছিয়ে 'বৈজু বাওরা' তেও মন দিতে চান পরিচালক। প্রযোজকদের সঙ্গে কথা পাকা হলে কনট্র্যাক্ট সই করবেন তিনি।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply