Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » বিধানসভায় বসবেন বিরোধী বেঞ্চে, দলত্যাগ বিরোধী আইন এড়াতেই কি মুকুল-কৌশল




ন বাইরে তৃণমূলে যোগ দিলেও বিধানসভার ভিতরে বিরোধী আসনেই বসবেন মুকুল রায়। দল ছাড়ার কথা জানিয়ে বা নিজের আসন বদলের জন্য তিনি কোনও আবেদন জানাননি। ফলে, তাঁর জন্য বিরোধীদের বেঞ্চেই আসন বরাদ্দ থাকছে। দলত্যাগ-বিরোধী আইন এড়াতেই তিনি এই কৌশলী অবস্থান নিয়েছেন বলে মনে করা হচ্ছে। প্রথম বার বিধায়ক হিসেবে নির্বাচিত হলেও রাজনীতিতে মুকুল গুরুত্বপূর্ণ। সে কারণে বিধানসভার আসন্ন অধিবেশনে তাঁর আসন নিয়ে চর্চা ছিলই। পরে তিনি তৃণমূলে যোগ দেওয়ায় তা নিয়ে কৌতূহল আরও বেড়ে যায়। তৃণমূলের পরিষদীয় দলে মুকুলের আসন নিয়ে আলোচনাও শুরু হয়। কিন্তু দলে তিনি যতই গুরুত্বপূর্ণ হোন না কেন, সরকার পক্ষের দিকে আসন দেওয়া হলে তা মুকুলের বিরুদ্ধে বিরোধীদের তোলা দলত্যাগের অভিযোগকেই সমর্থন করবে। সে কথা বিবেচনা করেই মুকুল বিরোধী বেঞ্চে বসতে চলেছেন বলে জানা গিয়েছে। মুকুলের এই অবস্থানের আরও একটি কারণ হচ্ছে, তিনি বিজেপির ইচ্ছা ও সমর্থন ছাড়াই পাবলিক অ্যাকাউন্টস কমিটির (পিএসি) সদস্য হয়েছেন। সব কিছু ঠিকঠাক থাকলে আয়ব্যয়ের হিসেব সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ ওই কমিটির চেয়ারম্যানও হতে পারেন তিনিই। প্রথা মতো এই পদটি বিরোধী দলের কোনও সদস্যের প্রাপ্য। তাই বিধানসভার ভিতরে মুকুল ‘বিরোধী’ শিবিরেই থাকছেন। ঠিক এ ভাবেই তৃণমূল পরিচালিত কলকাতা পুরসভার মেয়র হয়েও বিধানসভায় কংগ্রেসের সদস্য ছিলেন সুব্রত মুখোপাধ্যায়। সে ক্ষেত্রে বারবার তাঁর সদস্যপদ খারিজের দাবি উঠলেও তিনি ওই ভাবেই পূর্ণ মেয়াদ কাটিয়েছিলেন। যদিও এ সব ক্ষেত্রে নৈতিকতার প্রশ্ন থেকে যায়। মুকুলের ক্ষেত্রেও সেই সুযোগ কম নয়।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply