Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » মাদ্রিদে যোগ দিতে যাচ্ছেন ডি পল




সম্প্রতি স্প্যানিশ লিগ চ্যাম্পিয়ন অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন আর্জেন্টিনাকে কোপা জয়ে সহায়তা করা মিডফিল্ডার রড্রিগো ডি পল। পাঁচ বছরের জন্য তিনি চুক্তিতে সই করেছেন বলে ঘোষণা করেছে লা লিগা চ্যাম্পিয়নরা। এক বিজ্ঞপ্তিতে ক্লাবটি জানায়, অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ পলের ক্লাব উদিনেসের সঙ্গে একটি আপোষ রফায় পৌঁছেছে। ২০২৬ সালের জুন পর্যন্ত তিনি অ্যাতলেটিকোতে থাকছেন বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়। এ জন্য অ্যাতলেটিকোকে কোনও ট্রান্সফার ফি পরিশোধ করতে হবে না। তবে স্প্যানিশ গণমাধ্যমের রিপোর্ট অনুযায়ী, ৩৫ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে এই চুক্তি সম্পাদিত হতে যাচ্ছে। এ নিয়ে দ্বিতীয় দফায় স্পেনে ক্যারিয়ার গড়তে যাচ্ছেন ২৭ বছর বয়সি এই মিডফিল্ডার। এর আগে ২০১৪ থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত ভ্যালেন্সিয়ায় কাটিয়েছেন ডি পল। এই দল বদল থেকে অবশ্য লাভবান হচ্ছে ভ্যালেন্সিয়াও। কারণ উদিনেসের কাছে ডি পলকে তুলে দেয়ার সময় তার বিক্রয় মূল্যের একটি অংশ ক্লাবটিকে পরিশোধের শর্ত জুড়ে দেয়া ছিল। অ্যাতলেটিকো জানায়, ‘আমাদের ক্লাবে এমন একজন শক্তিশালী মিড ফিল্ডার আসছেন, যিনি বেশ সাবলীলভাবেই আক্রমণে সামিল হতে পারেন, নিজে গোল করতে পারেন এবং অন্যকে দিয়ে গোল করাতেও পারদর্শী।’ এদিকে এক বিবৃতিতে ডি পল বলেন, ‘আমি লা লিগা চ্যাম্পিয়ন দলে যাচ্ছি, এজন্য দারুন খুশি। আমি জানি সেখানে কি পরিমাণ দায়িত্ব নিতে হবে। এটি আমার ফুটবল ক্যারিয়ারে দারুন এক পদক্ষেপ।’ এর আগে গত সপ্তাহেই কোচ সিমিওনে ব্রাজিলীয় পুর্তগীজ উইঙ্গার মার্কোস পাওলোর সঙ্গে তার ক্লাবের সঙ্গে চুক্তির মেয়াদ ২০২৪ সাল পর্যন্ত বাড়িয়েছেন। সবাই জানেন যে, আর্জেন্টাইন কোচ দিয়েগো সিমিওনের হাত ধরেই ২০১৪ সালের পর প্রথমবারের মতো স্প্যানিশ লা লিগার শিরোপা জয় করে এ্যাতলেটিকো। যে কারণে সিমিওনের সাথে চুক্তি বৃদ্ধিতে রাজী হয় মাদ্রিদ জায়ান্টরা। আগামী বছর জুনে তার সাথে ক্লাবের বর্তমান চুক্তি শেষ হবার কথা ছিল। নতুন করে চুক্তি সম্পন্ন হবার পর টুইটারে সিমিওনে লিখেছেন, ‘সম্মান, দায়িত্ব, চ্যালেঞ্জ, আনন্দ। এ্যাথলেটিকো মাদ্রিদের সাথে থাকতে পেরে আমি দারুন খুশী।’ ২০১১ সালের ডিসেম্বরে এ্যাতলেটিকোর দায়িত্ব নিয়েছিলেন সিমিওনে। স্প্যানিশ লিগের অন্যতম ধারাবাহিক কোচ হিসেবে ইতোমধ্যেই নিজেকে প্রমাণ করেছেন এই আর্জেন্টাইন। এ পর্যন্ত ক্লাবটিকে আটটি শিরোপা ও ৩১৬টি জয় উপহার দেয়ায় আর্জেন্টাইন এই কোচকে ক্লাব ইতিহাসের সবচেয়ে সফল কোচ হিসেবে বিবেচনা করা হয়। ৯০ ও ২০০০ দশকে এ্যাতলেটিকোর ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার হিসেবে খেলেছেন সিমিওনে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply