sponsor

sponsor


Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » » নিউইয়র্ক ও নিউজার্সিতে জরুরি অবস্থা ঘোষণা




ভয়াবহ হারিকেন আইডা আঘাত হানার তিন দিন পরও নিউইয়র্ক ও এর পার্শ্ববর্তী অঙ্গরাজ্য নিউজার্সিতে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে। নিউইয়র্ক ও নিউজার্সিতে জরুরি অবস্থা ঘোষণা বৃহস্পতিবার (০২ সেপ্টেম্বর) ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ তথ্য জানিয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় আবহাওয়া দপ্তর নিউইয়র্কের সেন্ট্রাল পার্কে এক ঘণ্টায় আট সেন্টিমিটার বৃষ্টিপাতের রেকর্ড করেছে। নিউইয়র্ক ও নিউজার্সিতে বেশ কয়েকটি রেল ও আকাশপথ বন্ধ রাখা রয়েছে। নিউজার্সিতে বন্যার পানিতে ডুবে অন্তত একজনের মৃত্যুর সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে। এছাড়া আইডায় বিপর্যস্ত যুক্তরাষ্ট্রের লুইজিয়ানা ও মিসিসিপির ১০ লাখের বেশি বাড়িঘরে নেই বিদ্যুৎ। ধ্বংসস্তূপ সরিয়ে পরিষ্কার কাজ অব্যাহত রয়েছে। এছাড়া নিম্নাঞ্চলের বেশ কিছু এলাকায় এখনো বন্যার পানি থাকায় দুর্ভোগে স্থানীয়রা। আরও পড়ুন: ৫০ বছরে জলবায়ুর ভয়াবহ পরিবর্তন লুইজিয়ানার বিভিন্ন অঞ্চলে এখনো সেই তাণ্ডবচিহ্ন। ভারি বৃষ্টিতে দেখা দেয়া বন্যার পানি এখনো কমেনি। ডুবে আছে রাস্তা ঘাট ও বাড়িঘর। আপাতত নৌকাই যোগাযোগের একমাত্র ব্যবস্থা। তবে এখনো চলছে উদ্ধার অভিযান। পানি কমলে সড়ক ও ঘরবাড়ি সংস্কার কাজ শুরু করার আশা করছে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ। তবে কিছু এলাকা থেকে পানি নামতে শুরু করায় পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার কাজ শুরু করেছেন স্থানীয়রা। লুইজিয়ানা ও মিসিসিপির যেদিকে চোখ যায় কেবল হারিকেন আইডার তাণ্ডবচিহ্ন। বাড়িঘর ও বিভিন্ন স্থাপনার পাশাপাশি রাস্তাঘাটের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। কোথাও কোথাও রাস্তা ধসে পড়েছে। এতে প্রাণহানির ঘটনাও ঘটছে। আইডার আঘাতে বাড়ি ঘর হারিয়ে নিঃস্ব হয়ে পড়েছে অনেক পরিবার। অনেককে হাত পাততেও দেখা গেছে। তবে যাদের বাড়িঘর আছে তারাও চরম দুঃসময় পার করছেন। লুইজিয়ানা ও মিসিসিপির ১০ লাখের বেশি পরিবার এখনো বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন। হারিকেন আইডা যে তাণ্ডব চালিয়েছে তাতে তিন দিনেও পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে পারেনি কর্তৃপক্ষ। চাপ বেড়েছে গ্যাস স্টেশনেও। দেখা দিয়েছে চরম জ্বালানি সঙ্কট। তবে নিউ অরলিন্সের বেশ কিছু এলাকায় বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে। যে যেভাবে পারছেন অসহায়দের সাহায্যে এগিয়ে আসছেন। বিভিন্ন সংস্থার পক্ষ থেকে খাদ্য ও নিত্য প্রয়োজনীয় ব্যবহার্য জিনিস সরবরাহ করা হচ্ছে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply