Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » » মের্কেলের আধিপত্য চুরমার করে সামনে এলেন শলজ




নির্বাচন শেষ হওয়ার ৪৮ ঘণ্টা পার হয়ে গেলেও সরকার গঠন নিয়ে জটিলতার নিরসন হয়নি জার্মানিতে। কেমন সরকার দেখতে চান? পলিট ব্যুরোর এমন এক জরিপে দেশটির বেশির ভাগ সাধারণ নাগরিকদের চাওয়া, সোশ্যাল ডেমোক্রেট পার্টি (এসপিডি), এফডিপির ও গ্রিন দলের জোট সরকার। মের্কেলের আধিপত্য চুরমার করে সামনে এলেন শলজ আর তারা চ্যান্সেলর পদে দেখতে চান বিজয়ী দল এসপিডির প্রধান ও এবারের নির্বাচনের চ্যান্সেলর পদপ্রার্থী ওলাফ শলজকে। আঙ্গেলা মের্কেলের হাত ধরে জার্মানিতে আধিপত্য গড়ে তুলেছিল মধ্য ডানপন্থী দল ক্রিশ্চিয়ান ডেমোক্রেটিক ইউনিয়ন (এসডিইউ)। দেড় যুগের সেই আধিপত্যের অবসান ঘটিয়ে দেশটির সবচেয়ে পুরাতন দল এসপিডি সামনে নিয়ে এলেন ওলাফ শলজ। ৭৩০টি আসনের পার্লামেন্টের ফল অনুযায়ী, সোশ্যাল ডেমোক্রেট পার্টি (এসপিডি) ২০৬টি আসন, ক্রিশ্চিয়ান ডেমোক্রেটিক ইউনিয়ন (এসডিইউ) ১৯৬টি আসন, গ্রিন পার্টি ১১৮টি আসন, লিবারেল ডেমোক্রিটিক পার্টি ৯২, এএফডি ৮৩ ও বাম দল ৩৯টি আসন পেয়েছে। ২৪ দশমিক ১ শতাংশ ভোট নিয়ে বিদায়ী মের্কেলের দল এসডিইউর আরিমন লাশেথ চান সুবজদল ও এফডিপিকে নিয়ে জোট সরকার গঠন। এর মধ্যে এফডিপি ও সুবজ দলকে নিয়ে কাঙ্ক্ষিত একট জোট সরকার গঠনে ইতিমধ্যে দলের জ্যেষ্ঠ নেতাদের সঙ্গে একাধিক বৈঠক করেছেন চ্যান্সেলর পদের অন্যতম দাবিদার ওলাফ শলজ। এদিকে যে কোনো মূল্যে জোট সরকারের অংশীদার হতে ভোটে জেতা সম্ভাব্য সবগুলো দলের সঙ্গে আলোচনায় প্রস্তুত এবারের নির্বাচনে ১১৮ আসনে জেতা গ্রিন পার্টি। তারই ধারাবাহিকতায় ভাইস চ্যান্সেলর হওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন দলটির শীর্ষ নেতা রোব্যার্ট হাবেক। তবে কর নির্ধারণ, মহাসড়কে গতি নিয়ন্ত্রণ, শ্রমের নূন্যতম মজুরি, জলবায়ুসহ আরও নানা সমস্যায় এফডিডিপির সঙ্গে বনিবনা না হলে এসপিডির সঙ্গে জোট সরকারের রুপরেখা ভেস্তে যাওয়ার শঙ্কাও রয়েছে। জনগণের অধিকার রক্ষা, উদারপন্থি, উন্নয়নমুখী, গণতন্ত্রে বিশ্বাসী ও বিশ্বের দরবারে দেশটির ভাবমূর্তি রক্ষায় কাজ করবে, এমন সরকার দেখতে চান দেশটির সাধারণ মানুষ।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply