Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » এফডিসিতে যে গান গাইছেন অরুণা ও মৌসুমি




এফডিসিতে যে গান গাইছেন অরুণা ও মৌসুমি

‘হারজিত চিরদিন থাকবে, তবুও এগিয়ে যেতে হবে, বাধাবিঘ্ন না পেরিয়ে বড় হয়েছে কে কবে?’ অরুণা বিশ্বাস এবং মৌসুমির কণ্ঠে এফডিসিবাসী শুনছে এই গান। শিল্পী সমিতির নির্বাচন চলছে। ভোটাররা ভোট দিচ্ছেন। ইলিয়াস-নিপুন ও মিশা-জায়েদ উভয় প্যানেলের নেতাকর্মীরাই উপস্থিত আছেন ভোটের মাঠে। মিশা এবং ইলিয়াস দুজনেই ভোট চাইছেন উপস্থিত ভোটারদের কাছে। এর মধ্যে দেখা হলো অরুণা বিশ্বাসের সাথে। অরুণা উভয় পক্ষকে উৎসাহিত করতে গান গেয়ে শোনালেন। তার সাথে কণ্ঠ মেলালেন চিত্রনায়িকা মৌসুমিও। ‘হারজিৎ চিরদিন থাকবে।’ কথা হলো শাকিল খানের সাথে। জানালেন শিল্পী সমিতি নিয়ে তার প্রত্যাশার কথা। সব যোগ্য ভোটারদের কাছে শাকিল আহ্বান করেন, যেন উপযুক্ত প্রার্থীদেরই নিরবাচিত করেন তারা। শাকিল বললেন, আপনার হতাশ হবেন না। ভালো চলচ্চিত্র তৈরি হচ্ছে। হলবিমুখ হবেন না, শিল্পীদের ওপর আস্থা রাখুন। শাকিল বাংলা চলচ্চিত্রের কোনো এক অন্ধকার সময়ের কথা স্মরণ করে বলেন, সেসময়, অশ্লীলতা আর যেন ফিরে না আসে। বাংলা ছবির দুর্দশা যেন কেটে যায়। এফডিসিতে হাস্যোজ্জ্বল দেখা গেলো কাবিলাকে। তবে কণ্ঠস্বরে সমস্যা থাকায় কথা বলতে পারলেন না তিনি। ভোটারদের সাথে কথা বলে জানা গেলো, ভোট দিতে পেরে আনন্দিত তারাও। পুরো এফডিসি প্রতিদ্বন্দ্বী ও ভোটার সবার মিলনমেলায় পরিণত হয়েছে। মিশা সওদাগর বলছেন, ভোট সুষ্ঠু হচ্ছে। যেই জয়ী হোক, তাকে আনন্দের সাথে স্বাগত করাটাই উদ্দেশ্য। নায়ক আমিন খানও এসেছেন ভোট দিতে। আমিন বললেন, আসার ইচ্ছে ছিল বিকেলে, কিন্তু লোভ সামলাতে না পেরে সকাল সকালই চলে এলাম। খুবিই উচ্ছ্বাস প্রকাশ করলেন তিনিও। আমিন খান জানালেন, তিনি কাকে ভোট দেবেন, এক মাস আগেই ঠিক করে রেখেছে ন। বললেন, আমি কাকে ভোট দেব , একমাস আগেই ঠিক করে রেখেছি। নির্বাচনের মাঠে দুই পক্ষই বলছেন, ভোটাররা যাকে ভালো মনে করবে তাকেই ভোট দেবে। তবে ফলাফল যাই হোক, শিল্পী সমিতির উন্নয়নের জন্য কাজ করবেন সবাই মিলেমিশেই। শিল্পী সমিতির মূল লক্ষ্য এফডিসি, চলচ্চিত্র ও শিল্পীদের উন্নয়ন বলেও জানান তারা।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply