Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের আরও কাছাকাছি চলে এসেছে রুশ সেনারা।




পতনের মুখে কিয়েভ

ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের আরও কাছাকাছি চলে এসেছে রুশ সেনারা। স্থানীয় সময় রোববার রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে দুটি ভিডিও প্রকাশ করা হয়েছে। তাতে দেখা যায়, উত্তর দিক থেকে কিয়েভের দিকে অগ্রসর হচ্ছে রুশ সেনারা। এদিন রাশিয়া প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জানান, গত চব্বিশ ঘণ্টায় কিয়েভের দিকে ১৪ কিলোমিটার এগিয়ে গেছে তাদের বাহিনী। একই দিন আরেকটি ভিডিও প্রকাশ করে রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। ভিডিওতে দেখা যায়, কিয়েভে ইউক্রেনের সশস্ত্র বাহিনীর একটি ঘাঁটি ধ্বংস করছে রুশ সেনারা। এ সময় ইউক্রেনের এসইউ-টুয়েন্টিফোর একটি বোমারু বিমান ও মানুষবিহীন দুটি বিমানও ভূপাতিত করা হয়। মন্ত্রণালয়ের ওই মুখপাত্র জানান, ইউক্রেনে সামরিক অভিযানে সাড়ে তিন হাজারের বেশি ইউক্রেনীয় সামরিক স্থাপনা ধ্বংস করা হয়েছে। ইউক্রেনে রুশ সামরিক অভিযান দুই সপ্তাহ পেরিয়ে তৃতীয় সপ্তাহে পা দিয়েছে। এখনও ইউক্রেনের বিভিন্ন শহরে বিমান হামলার সতর্ক সংকেত শোনা যাচ্ছে। তার মধ্যে কিয়েভের উপকণ্ঠের এলাকাও রয়েছে। আরও পড়ুন : আমি ছাড়া কেউ এ পরিস্থিতি সামলাতে পারবে না: ট্রাম্প গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরুর ঘোষণা দেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। এর পর থেকেই পশ্চিমাদের বাধা উপেক্ষা করেই পূর্ব ইউরোপের দেশটিতে চলছে রুশ অভিযান। ইউক্রেনকে ‘অসামরিকায়ন’ ও ‘নাৎসিমুক্তকরণ’ এবং দোনেৎস্ক ও লুহানস্ককে রক্ষা করার জন্যই ‘বিশেষ সামরিক পদক্ষেপ’ নামে অভিযান শুরু করে আসছে রাশিয়া। ইউক্রেনের পক্ষ থেকে বলা হয়, সম্পূর্ণ বিনা উসকানিতে রাশিয়া হামলা চালিয়েছে। দেশটি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে সাহায্যের আবেদন জানিয়ে আসছে। আরও পড়ুন : ধন-সম্পদ দুবাইয়ে সরাচ্ছে রুশ বিত্তশালীরা রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে আরেক দফা আলোচনা চলছে। সোমবার দুই দেশের প্রতিনিধিরা ভিডিও কনফারেন্সে আলোচনা করছেন। ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলদিমির জেলেনস্কি বলেছেন, দুই পক্ষের আলোচনা চলছে। সবাই অপেক্ষায় আছেন। বৈঠকে কী সিদ্ধান্ত আসে তা আজ সন্ধ্যায় জানানো হবে। এদিকে ইউক্রেনের দোনেৎস্কে ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় ২০ জন বেসামরিক নাগরিক নিহত ও ২৮ জন আহত হয়েছেন বলে দাবি করেছে রাশিয়া। তবে ইউক্রেন এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে। ইউক্রেনের সামরিক মুখপাত্র লিওনিদ মাতিউখিন টেলিভিশনে ব্রিফিংয়ে বলেছেন, ‘এটি নিঃসন্দেহে রাশিয়ান হামলা। এ নিয়ে কথা বলার কোনো অর্থ নেই।’






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply