Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » ইউক্রেনে শেষ পর্যন্ত বিজয় আমাদেরই : ভিক্টর জলোটোভ




ইউক্রেনে শেষ পর্যন্ত বিজয় আমাদেরই : ভিক্টর জলোটোভ

ইউক্রেনে রাশিয়ার সামরিক অভিযান প্রত্যাশার চেয়ে মন্থর গতিতে এগোচ্ছে বলে স্বীকার করেছেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের অন্যতম ঘনিষ্ঠ সহযোগী ভিক্টর জলোটোভ। তবে শেষ পর্যন্ত বিজয় রাশিয়ারই বলেও মন্তব্য করেন তিনি। তিনি বলেছেন, ক্রেমলিন যতটা দ্রুত ইউক্রেন অভিযান চালাতে চেয়েছিল, ততটা দ্রুত হয়নি। ভিক্টর জলোটোভ রাশিয়ার ন্যাশনাল গার্ডের প্রধান ও পুতিনের সিকিউরিটি কাউন্সিলের অন্যতম সদস্য। খবর রয়টার্সের। ইউক্রেনে শেষ পর্যন্ত বিজয় আমাদেরই : ভিক্টর জলোটোভ গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরুর ঘোষণা দেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। এর পর থেকেই পশ্চিমাদের হুমকি-ধামকি উপেক্ষা করেই পূর্ব ইউরোপের দেশটিতে চলছে রুশ অভিযান। হামলার আগে মার্কিন গোয়েন্দাদের এক রিপোর্টে দাবি করা হয়, হামলার পর মাত্র দুই দিনে রাজধানী কিয়েভ দখলে নিতে চায় রুশ বাহিনী। কিন্তু অভিযানের পর তিন সপ্তাহ হয়ে গেলেও এখনও রাজধানী কিয়েভে প্রবেশ করতে পারেনি রুশ বাহিনী। অবশ্যই এই মুহূর্তে রাজধানী খুবই কাছেই অবস্থান করছে রাশিয়ার সবচেয়ে বড় সামরিক বহরটি। বিষয়টি স্বীকার সোমবার রাশিয়ার ন্যাশনাল গার্ডের ওয়েবসাইটে এক মন্তব্য কলামে ভিক্টর জলোটোভ বলেন, অভিযানের অগ্রগতি প্রত্যাশার চেয়ে মন্থর গতিতে এগোচ্ছে। আরও পড়ুন : ইউক্রেন নিয়ে উচ্চ পর্যায়ের বৈঠকে চীন-যুক্তরাষ্ট্র এর জন্য তিনি ইউক্রেনীয় সেনাদের এক কৌশলকে দায়ী করেছেন তিনি। বলেছেন, রুশ বাহিনীকে ঠেকাতে দেশের বেসামরিক নাগরিকদের মানবঢাল হিসাবে ব্যববহার করছে ইউক্রেনীয় বাহিনী। ভিক্টর জলোটোভের ভাষায়, ‘আমি বলব, হ্যা, সব কিছুই আমাদের প্রত্যাশা মতো চলছে না। তবে আমরা এক পা এক পা করে আমাদের লক্ষ্যের দিকে এগিয়ে যাচ্ছি। এবং বিজয় শেষ পর্যন্ত আমাদেরই হবে।’ ভিক্টর প্রেসিডেন্টের সাবেক দেহরক্ষী, যিনি এখন ন্যাশনাল গার্ডের পরিচালক। পুতিন ব্যক্তিগত সেনাবাহিনী হিসেবে ৬ বছর আগে এই গার্ড প্রতিষ্ঠা করেন।গার্ডের দায়িত্ব প্রদান করার মাধ্যমে বোঝা যায় ভিক্টর পুতিনের বিশ্বস্তদের একজন। আরও পড়ুন : নতুন নিষেধাজ্ঞার মুখে রুশ ধনকুবেররা এদিকে ইউক্রেনে রুশ বাহিনী সন্ত্রাসীর মতো আচরণ করছে বলে দাবি করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী ডেনিস শ্যামিহাল। সোমবার কাউন্সিল অব ইউরোপের অ্যাসেম্বলিতে দেওয়া ভাষণে এমন মন্তব্য করেন তিনি। ডেনিস শ্যামিহাল বলেন, ভ্লাদিমির পুতিনের আসল উদ্দেশ্যের ব্যাপারে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় ‘অবশেষে চোখ খুলেছে






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply