Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » » শুরু থেকেই রাশিয়ার লক্ষ্যবস্তু খারকিভ




শুরু থেকেই রাশিয়ার লক্ষ্যবস্তু খারকিভ ইউক্রেনে রুশ সামরিক অভিযানের প্রথম থেকেই অন্যতম লক্ষ্যবস্তু ছিল খারকিভ দখল।

সীমান্তের কাছে হওয়ায় শহরটিতে একের পর এক হামলা চালানো হয়। রকেট ও গোলা হামলায় ভবনগুলোর ধ্বংসাবশেষ সাক্ষ্য দেয় ভয়াবহতার। শিল্পখাতের জন্য প্রসিদ্ধ খারকিভ এখন ধ্বংসস্তূপের নগরী। শহর থেকে রুশ সেনারা চলে গেলেও রাশিয়ার সীমান্ত থেকে এখনো শহরের ভবনগুলোতে বোমা ও গোলা হামলা অব্যাহত রয়েছে। সুউচ্চ ভবনগুলো বোমার আঘাতে মুহূর্তেই ধ্বংসযজ্ঞে পরিণত হচ্ছে। ফিলিপ গেরাসিম নামের একজন নাগরিক বলেন, একাধিক বোমা হামলার শিকার ভবনটি এখন বীভৎস অবস্থায় দাঁড়িয়ে আছে। রাশিয়ার সেনারা মিথ্যা আশ্বাস দিয়ে শহরে অভিযান চালায়। সামরিক অভিযানের নামে তারা এখানে ধ্বংসযজ্ঞ চালিয়েছে। এটি একটি ছোট অংশ মাত্র, চারপাশে এমন অসংখ্য ভবন ক্ষত-বিক্ষত হয়ে গেছে। এর প্রতিশোধ অবশ্য ইউক্রেনীয় সেনারা নেবে এবং আশা করি দ্রুতই সবকিছুর অবসান হবে। শহরের খলদনগরিস্কি এলাকার বাসিন্দা জুলিয়া। চোখের সামনেই বোমা পড়তে দেখেছেন খারকিভের সামরিক ইউনিটে। দেখেছেন লাশের সারি আর ধ্বংসযজ্ঞ। প্রতিবেশী দেশ এভাবে হামলা চালাবে তা কখনোই ভাবেননি তিনি। তিনি বলেন, পেছনের ধ্বংসস্তূপটি আগে আমাদের সেনাবাহিনীর ইউনিট ছিল। রাশিয়ান সৈন্যরা এখানে বোমা নিক্ষেপ করে। এই ধ্বংসস্তূপে বাবা-ছেলে একসঙ্গে মারা গেছে। আমি জানিনা রাশিয়ান সৈন্যদের মায়েরা কীভাবে ঘুমায়। আমাদের মতো শান্তিপ্রিয় দেশের ওপর প্রতিবেশী দেশ বোমা হামলা করেছে, তা কখনো ভুলব না। আরও পড়ুন- খারকিভ যেন শূন্যতায় শোকসভা এখন পর্যন্ত খারকিভ শহরে বোমা হামলায় প্রায় ২ হাজার ১০০ ভবন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে জানিয়েছে খারকিভ নগর প্রশাসন। শহরে এমন অসংখ্য ভবন ধ্বংসের চিহ্ন পাওয়া যায়। তবে, এটি ছিল ইউক্রেনীয় সেনাদের বেজ ক্যাম্প। যেহেতু এখান থেকে রাশিয়ার সীমান্ত খুব কাছে, তাই এটি ধ্বংস করাই ছিল রাশিয়ার মূল লক্ষ্য। বড় সড় মিসাইল হামলা করে এটিকে দুমড়েমুচড়ে ফেলা হয়।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply