Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » » ফের রেকর্ড দরপতন ভারতীয় রুপির




ফের রেকর্ড দরপতন ভারতীয় রুপির মার্কিন ডলারের বিপরীতে ভারতীয় মুদ্রার রেকর্ড দরপতন হয়েছে। স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার (৯ জুন) দরপতনে নতুন রেকর্ড গড়ে রুপি। এদিন প্রতি ডলারের বিপরীতে ভারতীয় মুদ্রার দাম নেমে দাঁড়ায় ৭৭ রুপি ৮১ পয়সায়। এনডিটিভির এক প্রতিবেদেন এ খবর দেয়া হয়েছে। ফের রেকর্ড দরপতন ভারতীয় রুপির বিশ্বব্যাপী অপরিশোধিত তেলের মূল্যে লাগামহীন ঊর্ধ্বগতি আমদানিকৃত মুদ্রাস্ফীতির স্থায়িত্ব বৃদ্ধির উদ্বেগের কারণে বৃহস্পতিবার মার্কিন ডলারের বিপরীতে ভারতীয় রুপি সর্বনিম্ন রেকর্ড গড়ে। ভারতে মুদ্রাস্ফীতি ও আর্থিক মন্দার প্রভাবও রুপির দাম কমার জন্য দায়ী। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরু করে রাশিয়া। এরপর থেকে রুপির দাম পড়তে থাকে। বৈদেশিক মুদ্রাবাজারে বৃহস্পতিবার শুরুতে ডলারপ্রতি রুপির দাম ছিল ৭৭ রুপি ৭৮ পয়সা। একপর্যায়ে দাম দাঁড়ায় ৭৭ রুপি ৭৯ পয়সা। পরে তা ৭৭ রুপি ৮১ পয়সায় স্থির হয়। এর আগে গত ১৭ মে রুপির সর্বনিম্ন দরপতন দেখা যায়। সেদিন ডলারের বিপরীতে ৭৭ রুপি ৭৯৭৫ পয়সা লেনদেন হয়। ভারতের অর্থনীতি এ মুহূর্তে টালমাটাল পরিস্থিতি বিরাজ করছে। এখন থেকে কয়েকদিন আগে ভারতের প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী মন্তব্য করেন, অদূর ভবিষ্যতে ভারতের অবস্থা তীব্র অর্থসংকটে পড়া শ্রীলঙ্কার মতোই হতে চলেছে। সেই পরিস্থিতি এখনো তৈরি না হলেও ভারতীয় অর্থনীতির রক্তক্ষরণ অব্যাহত। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে মুদ্রাস্ফীতি। এর মধ্যেই ভারতীয় মুদ্রার দাম ফের রেকর্ড পতন। করোনা পরিস্থিতিতে দেশের জিডিপির অধোগতি, বিপুল মানুষের কাজ হারানো। এরপর রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের জেরে জালানির দাম বেড়ে যাওয়া। যার ফলাফল মুদ্রাস্ফীতি। মুদ্রাস্ফীতি মোকাবিলায় সম্প্রতি নতুন করে সুদের হার বাড়িয়েছে রিজার্ভ ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া। আরও পড়ুন : ভারতীয় সেনাবাহিনীর শীর্ষ পদে নিয়োগে বড় পরিবর্তন এ নিয়ে গত তিন সপ্তাহের মধ্যে দ্বিতীয়বারের মতো সুদের হার বাড়ালো ভারত। রিজার্ভ ব্যাংক অব ইন্ডিয়ার গভর্নর শক্তিকান্ত দাস বলেন, এই পদক্ষেপের লক্ষ্য মূল্য বৃদ্ধি নিয়ন্ত্রণ এবং ইউক্রেন যুদ্ধের মতো ভূরাজনৈতিক উত্তেজনার প্রভাব মোকাবিলা। তিনি বলেন, মুদ্রাস্ফীতির ঊর্ধ্বমুখী ঝুঁকি … প্রত্যাশার চেয়ে আগে বাস্তবায়িত হয়েছে। মে মাসে মুদ্রাস্ফীতি ৪০ পয়েন্ট বৃদ্ধির পর বুধবার সুদের হার বাড়ানো হয়েছে। ভারতের কেন্দ্রীয় ব্যাংক ২০২২-২৩ অর্থবছরের জন্য মূল্যস্ফীতির অনুমান ৫.৭% থেকে ৬.৭% এ উন্নীত করেছে এবং এই বছরের বৃদ্ধির পূর্বাভাস ৭.২% রেখেছে। গভর্নর শক্তিকান্ত দাস বলেন, ইউক্রেনের যুদ্ধ ‘প্রতিদিনই নতুন নতুন চ্যালেঞ্জের জন্ম দিচ্ছে যা বিদ্যমান সরবরাহ শৃঙ্খল ব্যাঘাতকে আরও বাড়িয়ে তুলছে। ফলে খাদ্য, জ্বালানি ও দ্রব্যমূল্য ঊর্ধ্বমুখী থাকছে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply