Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » শর্মিলী আহমেদের মৃত্যু, শোকে স্তব্ধ দেশের শোবিজ অঙ্গন




জনপ্রিয় টেলিভিশন ও চলচ্চিত্র অভিনেত্রী শর্মিলী আহমেদের মৃত্যুতে শোবিজ অঙ্গনে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। প্রিয় শিল্পীর মৃত্যুতে ফেসবুক ভাড়ি হয়ে উঠেছে শোকের বার্তায়। খ্যাতিমান অভিনেত্রী সুবর্ণা মুস্তাফা ফেসবুকে নিজের ভেরিফায়েড আইডিতে শর্মিলী আহমেদের মৃত্যুর খবরটি নিশ্চিত করে লিখেছেন, “আমার সুন্দর চাচী, খ্যাতিমান অভিনেত্রী শর্মিলী আহমেদ চাচী সকালে তার নিজ বাড়িতে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন। তার আত্মার শান্তি কামনা করছি।” অভিনেত্রী রুনা খান লিখেছেন, “তার উপহার দেওয়া শাড়ীতে আমার আলমারী ভরা..। আর গত চার বছরে যে মমতা আর দরদ তিনি দেখিয়েন আমার প্রতি তা লিখে-বলে-বুঝিয়ে ব্যাখ্য করবার সাধ্য আমার নেই..। একজন করে কাছের মানুষ চলে যায়, আর আমার আরো তীব্র ভাবে মনে হতে থাকে, জীবন এত ছোট..! এই ছোট্ট জীবনে মানুষকে ভালোবাসা দেয়া, আর মানুষের ভালোবাসা পাওয়া ছাড়া আর কোন কিছুই তেমন কোন অর্থ বহন করে না..। আপনি অর্থপূর্ণ জীবন যাপন করে গেছেন আন্টি। মহান সৃষ্টিকর্তা সকল আত্মার শান্তি দিন।” নির্মাতা চয়নিকা চৌধুরী লিখেছেন, “এমন তো কথা ছিল না এত তাড়াতাড়ি মা.. শর্মিলী আহমেদ, তুমি কেন চলে গেলে মা? আজ ভোর সকালে? সেইদিন না এক সাথে খেলাম,কত গল্প করলাম! সবাই প্রার্থনা করবেন।” নাট্যকার, ঔপন্যাসিক, নাট্য নির্দেশক মাসুম রেজা লিখেছেন, “শর্মিলী দি, এক মহাতারকা.. আমি তাকে বড়দি ডাকতাম.. ২০১০ সালে উনি লন্ডনে গিয়েছিলেন.. একদিন সারাদিন আমার অক্সফোর্ডের বাড়ির অতিথি হয়েছিলেন তিনি.. আমার বাগানের আপেল গাছ থেকে পেড়ে দেওয়া আপেল খাচ্ছিলেন তিনি.. একটু ঠান্ডা ঠান্ডা ছিলো তাই একটা হালকা চাদর জড়িয়ে ছিলেন গায়ে.. কী সুন্দর লাগছিলো বড়দিকে.. বড়দিকে পেয়ে মহানন্দে মেতেছিলাম সেদিন.. আজ এই নক্ষত্রের বিদায় ঘন্টা বাজলো.. জীবনকে যেভাবে উদযাপন করেছো বড়দি.. মরণও সেভাবে উদযাপিত হোক তোমার।” প্রত্যের মত স্মৃতির পাতা থেকে ছবি প্রকাশ করে অভিনেত্রী দিপা খন্দকার লিখেছেন, “এতো আনন্দের ছবি দিয়ে আজ এই বেদনার খবর শেয়ার করতে হচ্ছে। অনন্ত যাত্রায় ভাল থাকবেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। আল্লাহ বেহেস্ত নসিব করুন।” অভিনেত্রী গোলাম ফরিদা ছন্দা লিখেছেন, “মা তুমি এভাবে হাসবে না ! তোমার আদর পাবোনা মেনে নিতে পারছিনা! কতোবার ভেবেছি একটু গিয়ে দেখা করে আসবো, আজ যাচ্ছি ,কাল যাচ্ছি করে আর যাওয়া হলো না ‼️তুমিই চলে গেলে‼️আজ সকালটা এই রকম হবে ভাবিনি‼️ক্রমাগত আমরা অভিভাবক শুন্য হয়ে পরছি। শর্মিলী মা বড্ড ভালোবাসি তোমায়। আমাদের ছেড়ে যেখানে গেলে শান্তিতে থাকো সেখানে। চির শান্তিময় হোক এ নিদ্রা।” অভিনেত্রী সারিকা সাবা লিখেছেন, “৩ বছরের ছোট্ট এই জার্নিতে যে আদর, ভালবাসা আপনি দিয়েছেন তার কোন রিপ্লেসমেন্ট নেই। এখনও মনে হচ্ছে আবার দেখা হবে, অন্যদের শট থাকলে আবার আপনার সাথে ঘন্টার পর ঘন্টা বন্ধুর মতো আড্ডা হবে। আপনার মায়া থেকে বের হওয়া কঠিন শর্মিলি আন্টি, আল্লাহ্ আপনাকে বেহেস্তের সর্বউচ্চ স্তর দান করুক আমিন।” অভিনেত্রী ও উপস্থাপক এলিনা শাম্মী লিখেছেন, “এ কেমন চলে যাওয়া,,, আহা শর্মিলি মা,,, এমন অভিভাবক আমরা আর কোথায় পাবো, ভাষাহীন আমরা,,,আল্লাহ তায়ালা জান্নাতুল ফেরদৌস কবুল করে নিন।” শর্মিলী আহমেদ ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে শুক্রবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে মারা যান। তার পারিবারিক সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৫ বছর। অভিনয় শিল্পী সংঘের সভাপতি আহসান হাবিব নাসিমও গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। জানা গেছে, শর্মিলী আহমেদ দীর্ঘদিন ক্যানসারে ভুগছিলেন। ১৯৬২ সালে রেডিওতে এবং ১৯৬৪ সালে চলচ্চিত্রে তিনি ক্যারিয়ার শুরু করেন। তিনি বাংলাদেশ টেলিভিশনের প্রথম ধারাবাহিক নাটক দম্পতিতে কাজ করেছেন। ১৯৪৭ সালে জন্ম নেয়া এই জনপ্রিয় অভিনেত্রী অভিনয় শুরু করেন মাত্র চার বছর বয়স থেকে। এ পর্যন্ত প্রায় ৪০০ নাটক ও ১৫০ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। ১৯৭৬ সালে মোহাম্মদ মহসিন পরিচালিত আগুন নাটকে প্রথমবারের মত মায়ের ভূমিকা পালন করেছিলেন। অভিনয় জীবনে মঞ্চ, টিভি ও চলচ্চিত্রের বৈচিত্র্যপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। সবার মন জয় করেছেন সাবলীল অভিনয় দিয়ে। তার অনুপস্থিতি শোবিজ অঙ্গনের জন্য এক বিশাল ক্ষতি। এ অভিনেত্রীর মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply