Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » মেহেরপুরের নন্দিত শিক্ষাবিদ মুন্সি সাখওয়াত হোসেন




মহসিন আলী আঙ্গুর// শোষিত মানুষের জন্য মেহেরপুরের সংগ্রামী মানুষ মুন্সী সাখাওয়াত হোসেন। দেশের উন্নয়নের জন্য সব সময় তিনি নিজেকে নিয়োজিত রেখেছিলেন। রাজনীতি, সাহিত্য, সংস্কৃতি ও শিক্ষাঙ্গনে যার অবাধ বিচরণ ছিল। মুন্সী সাখাওয়াত হোসেন পূর্ব পুরুষগন বাগদাত থেকে এই বঙ্গে এসেছিলেন ইসলাম প্রচারের জন্য। সেই পূর্ব পূরুষ মেহেরপুরের বাগোয়ানে স্থায়ীভাবে বসবাস শুরু করেন। তার পিতার নাম মুন্সী ওলিদাত হোসেন। তিনি ব্রিটিশ সামন্ত আমলে জমিদারের নায়েব ছিলেন। মুন্সী সাখাওয়াত হোসেন ছিলেন মাওলানা ভাষানীর শিষ্য ও সাবেক প্রধান মন্ত্রী কাজী জাফরের ঘনিষ্টজন। কাজী জাফরের সাথে তিনি দল বদল করেছেন সবসময়। সর্বশেষ জাতীয় পার্টিতে যোগদান করেন। মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক, রাজনীতি, সাহিত্য, সংস্কৃতি, শিক্ষাবিদ ও ভাষা সৈনিক মুন্সী সাখাওয়াত হোসেনের জন্ম ১৯৩৮ সালের পহেলা জানুয়ারি মেহেরপুরের বাগোয়ান গ্রামে। দারিয়াপুর হাইস্কুল থেকে ১৯৫৮

সালে ম্যাট্রিক পাশ করেন। এই সময় তিনি রাজনীতির সাথে জড়িয়ে পড়েন। ১৯৬২ সালে তিনি কুষ্টিয়া কলেজ থেকে আইএ পাশ করেন। ১৯৬৫ সালে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাংলায় বিএ(সম্মান) এবং একই বিষয়ে ১৯৬৬ সালে এমএ পাশ করেন। ওই বছরে তিনি দিনাজপুরের বোদা থানার একটি বালিকা বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক হিসাবে চাকুরি শুরু করেন। তিনি স্বাধীনতা যুদ্ধের পর মেহেরপুরে কবি নজরুল শিক্ষা মঞ্জিলে প্রধান শিক্ষক হিাসাবে যোগদান করেন। ১৯৫৭ সালে কাগমারি সম্মেলনের পর যুক্তফ্রন্ট ভেঙ্গে গেলে মাওলানা ভাষানীর ন্যশনাল আওয়ামী পার্টিতে যোগদান করেন। স্বাধীনতা যুদ্ধে তিনি স্বপরিবারে ভারতে চলে গিয়ে মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহন করেন। মেহেরপুর পৌর পরিষদ তার নামে মেহেরপুর বড় বাজারে একটি মার্কেট স্থাপন করেছেন।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply