Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » ইরানের চাবাহার বন্দর পরিদর্শনে ভারতের জলপথ মন্ত্রী




ভারতের কেন্দ্রীয় বন্দর, জাহাজ চলাচল ও জলপথ মন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোয়াল ইরানের চাবাহার বন্দরের শহীদ বেহেশতি টার্মিনাল পরিদর্শন করেছেন। সোনায়াল বৃহস্পতিবার চাবাহার বন্দর পরিদর্শন এবং ইরানের মন্ত্রীদের সাথে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে অংশ নিতে ইরান এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতে একটি সরকারি সফর শুরু করেন। এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তি থেকে জানা যায়, চাবাহার বন্দরের অপার সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে তিনি ‘ইন্ডিয়ান পোর্টস গ্লোবাল চাবাহার ফ্রি ট্রেড জোনকে ছয়টি ভ্রাম্যমাণ হারবার ক্রেন দেন। এসময় কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন ইরানে ভারতের রাষ্ট্রদূত গাদ্দাম ধর্মেন্দ্র। এদিকে সর্বানন্দ সোনোয়াল এবং ইরানের বন্দর ও সামুদ্রিক সংস্থার উপমন্ত্রী ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. আলী আকবর সাফাইয়ের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল দুই দেশের মধ্যে সামুদ্রিক ও বন্দর সহযোগিতা উন্নয়নের বিষয়ে বৈঠক করেছেন। তারা মধ্য এশিয়ার দেশগুলোর সঙ্গে দক্ষিণ এশিয়া, আসিয়ান এবং জাপান ও কোরিয়ার মত দেশের বাণিজ্য সম্ভাবনা নিয়ে আলোচনা করেন। দূরত্ব, সময় এবং খরচ কমাতে চাবাহার বন্দর যে ভূমিকা রাখতে পারে তা গুরুত্বের সঙ্গে তুলে ধরেন ভারতের মন্ত্রী। এ সময় বন্দরের কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য একটি যৌথ কারিগরি কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত হয়। বৈঠকে বন্দরটির উন্নয়নের লক্ষ্যে ভবিষ্যৎ কর্মপন্থা নিয়েও আলোচনা হয়। সর্বানন্দ সোনোয়াল বলেন, “মধ্য এশিয়া, দক্ষিণ এশিয়া এবং দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার মধ্যে আঞ্চলিক বাণিজ্যের সম্ভাবনার দ্বার উন্মুক্ত করতে চাবাহার বন্দরের ভূমিকা অপরিসীম। আন্তর্জাতিক উত্তর-দক্ষিণ করিডরকে এ দুই অঞ্চলের বাণিজ্যিক পথ হিসেবে ব্যবহার করার জন্য আমরা ক্রমাগত কাজ করে যাচ্ছি।" ইন্ডিয়া পোর্টস গ্লোবাল প্রাইভেট লিমিটেড (আইপিজিপিএল) শহীদ বেহেশতি বন্দরের কার্যক্রম গ্রহণ করার পর থেকে এটি ৪.৮ মিলিয়ন টন কার্গো হ্যান্ডলিং করেছে। এতে অস্ট্রেলিয়া, বাংলাদেশ, ব্রাজিল, জার্মানি, ওমান, রোমানিয়া, রাশিয়া, থাইল্যান্ড, সংযুক্ত আরব আমিরাত (ইউএই), ইউক্রেন এবং উজবেকিস্তানসহ বিভিন্ন দেশ থেকে পণ্যের চালান ছিল। ভারতের মন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোয়াল ইরান এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতে তিন দিনের সরকারি সফরে রয়েছেন। তিনি সংযুক্ত আরব আমিরাতের জেবেল আলি বন্দর পরিদর্শন করবেন।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply