Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » বিশ্বকাপে খেলবেন শামি, তবে...




ভারতের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মূল স্কোয়াডে জায়গা হয়নি অভিজ্ঞ পেসার মোহাম্মদ শামির। আছেন স্ট্যান্ডবাই ক্রিকেটারের তালিকায়। তবে নতুন গুঞ্জন, বিশ্বকাপে খেলার সম্ভাবনা শেষ হয়ে যায়নি তার। ভারতীয় এক নির্বাচকের দাবি–এখনও বিশ্বকাপের দলে ঢুকতে পারেন শামি। এশিয়া কাপ ব্যর্থতার পরই শামিকে টি-টোয়েন্টির দলে ফেরানোর জোরালো গুঞ্জন চলছিল। তবে তাকে ছাড়াই ঘোষণা করা হয় স্কোয়াড। পরে জানা যায়, মোহাম্মদ শামি নাকি রবিচন্দ্রন অশ্বিন–কাকে রাখা হবে বিশ্বকাপ স্কোয়াডে, তা নিয়েই অনেক সময় ব্যয় করেছিলেন নির্বাচকরা। শেষ পর্যন্ত শামির বদলে অশ্বিনকেই অস্ট্রেলিয়া বিশ্বকাপের জন্য বেছে নেয়া হয়। আরও জানা যায়, নির্বাচকরা ঠিক করতে পারছিলেন না–১৫ জনের স্কোয়াডে অশ্বিন ও শামির মধ্যে কাকে রাখা হবে। এ নিয়ে দীর্ঘ আলোচনা হয়। সেখানে দ্রাবিড় ও রোহিত জানান, তারা মূল দলে অশ্বিনকেই চাইছেন। শেষ পর্যন্ত তাদের দাবিতেই সম্মতি দেয়া হয়। কোচ ও অধিনায়কের মতে, অশ্বিন দলে থাকলে একটা বৈচিত্র্য থাকবে। বোলিংয়ের পাশাপাশি ব্যাট হাতে তার অভিজ্ঞতাও কাজে লাগবে। বাঁ-হাতি ব্যাটারদের বিপক্ষে অশ্বিনের সাফল্যও তাকে শামির থেকে এগিয়ে দিয়েছে। বিশ্বকাপ স্কোয়াডে না থাকলেও অস্ট্রেলিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজের দলে আছেন শামি। আরও পড়ুন: রোহিত-দ্রাবিড় চাননি শামিকে, বিকল্প হিসেবে যাকে নেয়া হয় এদিকে ভারতীয় এক নির্বাচকের দাবি, শামি ১০ মাসের বেশি সময় ধরে টি-টোয়েন্টি খেলেনি। তাই তাকে সরাসরি দলে নেয়া সম্ভব ছিল না। কিন্তু তারপরও মূল দলে ও ঢুকতে পারে। বিশ্বকাপের আগে অস্ট্রেলিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজে শামির দিকে নজর রাখা হবে। তাকে ভালো করতে হবে সেখানে। তারপর যদি বিশ্বকাপের আগে দলের আর কোনো ক্রিকেটার ইনজুরিতে পড়ে, তাহলে শামিকে আগে সুযোগ দেয়া হবে। ভারতের বিশ্বকাপের দলে পেসারের তালিকায় রয়েছেন হার্শাল প্যাটেল ও জাসপ্রীত বুমরাহরা। দুজনই দীর্ঘদিন চোটে ভুগেছেন। বিশ্বকাপের দল নির্বাচনের আগে তারা সুস্থ হতে না পারলে শামিকেই অগ্রাধিকার দেয়া হতো বলে জানিয়েছেন ওই নির্বাচক। তিনি বলেন, বুমরাহ ও হার্শাল সুস্থ না হলে শামিকেই নেয়া হতো। ওই নির্বাচকের কথা থেকে স্পষ্ট, রিজার্ভ থেকে মূল দলে কাউকে নেয়া হলে সবার থেকে এগিয়ে রয়েছেন শামি। ২০২১ সালের নভেম্বরে নামিবিয়ার বিপক্ষে শেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছিলেন শামি। তারপর আইপিএলে খেললেও জাতীয় দলের হয়ে ছোট ফরম্যাটে আর দেখা যায়নি তাকে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply