Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » » শাহবাজ শরিফের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগ




শাহবাজ শরিফের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগ পাকিস্তানের পাঞ্জাব অ্যাসেম্বলি প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফের বিরুদ্ধে সংখ্যাগরিষ্ঠ ভোটে একটি প্রস্তাব পাস করেছে। যেখানে দেশটির নতুন সেনাপ্রধান নিয়োগের বিষয়ে লন্ডনে তার বড় ভাই নওয়াজ শরিফের সঙ্গে আলোচনা করার জন্য রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগে তার বিচার চাওয়া হয়েছে। খবর পিটিআইর শাহবাজ শরিফের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগ

পাঞ্জাবের সংসদীয়বিষয়ক মন্ত্রী বাশারত রাজা প্রধানমন্ত্রী শাহবাজের বিরুদ্ধে সংবিধানের ৬ অনুচ্ছেদের (রাষ্ট্রদ্রোহিতা) অধীনে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য সংসদে প্রস্তাব পেশ করেন। উল্লেখ্য, পাঞ্জাব ক্ষমতাচ্যুত প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ পার্টি এবং তার মিত্র দল পিএমএলকিউ দ্বারা শাসিত। রেজুলেশনে বলা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী কয়েকদিন আগে নতুন সেনাপ্রধান নিয়োগের বিষয়ে লন্ডনে একজন পলাতকের (পাকিস্তানের তিনবারের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ) সঙ্গে পরামর্শ করেছিলেন। এটি শুধু প্রধানমন্ত্রীর পদকে কলঙ্কিত করে না বরং সাধারণ ব্যক্তিদের সঙ্গে সংবেদনশীল বিষয় আলোচনা করার মাধ্যমে সেনাবাহিনীকেও অপমানিত করে। আরও পড়ুন: পাকিস্তানে বন্যার্তদের পাশে অ্যাঞ্জেলিনা জোলি পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী প্রয়াত রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের রাষ্ট্রীয় অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় যোগ দিতে লন্ডনে গিয়েছিলেন। সেখানে তিনি নওয়াজ শরিফের সঙ্গে দেখা করেন এবং পরবর্তী সেনাপ্রধান নিয়োগ নিয়ে আলোচনা করেন। পিটিআইএর চেয়ারম্যান ইমরান খান বলেন, আমরা ছবি দেখছি যে শাহবাজ শরিফ পরবর্তী সেনাপ্রধান নিয়োগের জন্য নওয়াজ শরিফের সঙ্গে পরামর্শ করছেন। আমাদের দেশের জন্য এর চেয়ে বড় অপমানের আর কী হতে পারে যে চোররা এমন সিদ্ধান্ত নিচ্ছে। এই ধরনের কাজ স্পষ্টত প্রধানমন্ত্রীর শপথ লঙ্ঘন এবং সরকারি গোপনীয়তা আইনের লঙ্ঘন হিসাবে অভিহিত করেছেন ইমরান। বর্তমান সেনাপ্রধান জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়া চলতি বছরের নভেম্বরের শেষ দিকে অবসরে যাচ্ছেন। শরীফের পাকিস্তান মুসলিম লিগ (এন) নেতৃত্বাধীন জোট সরকার বলেছে যে, তারা নতুন সেনাপ্রধান নিয়োগের জন্য তাদের মিত্র দল ও সেনাবাহিনীর শীর্ষস্থানীয়দের সঙ্গে পরামর্শ করবে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply