Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » বিএনপিকে ২৬ শর্তে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশের অনুমতি




বিএনপিকে ২৬ শর্তে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে গণসমাবেশের অনুমতি দিয়েছে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)। দলের যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে গণসমাবেশ করতে ডিএমপিতে বরাবর গত ২০ নভেম্বর আবেদন করেন। ওই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ডিএমপি নয়াপল্টনের পরিবর্তে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশের অনুমতি দিয়েছে। ডিএমপির চিঠিতে বলা হয়েছে, নয়পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সমাবেশ করলে যানজট ও নাগরিক দুর্ভোগ সৃষ্টি হবে বিধায় অনুমতি দেওয়া যাচ্ছে না। ডিএমপির চিঠিতে, সমাবেশের জন্য আগামী ১০ ডিসেম্বর (শনিবার) বেলা ১২টা থেকে বিকেল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত সময় উল্লেখ করা হয়েছে। সমাবেশ শুরুর দুই ঘণ্টা আগে লোকজন সমাবেশস্থলে আসতে পারবে। আজ মঙ্গলবার ডিএমপি কমিশনারের পক্ষে উপকমিশনার (সদর দপ্তর ও প্রশাসন) আব্দুল মোমেন সাক্ষরিত চিঠিতে জানানো হয়, সমাবেশের যাবতীয় কার্যক্রম সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের মধ্যেই সীমাবদ্ধ রাখতে হবে। উদ্যানের বাইরে কোথাও লোকসমাগম হওয়া যাবে না। এমনকি উদ্যানের বাইরে মাইক, লাউডস্পিকার কিংবা প্রজেক্টরও স্থাপন করা যাবে না। মিছিল সহকারে সমাবেশস্থলে আসা যাবে না। পতাকা, ব্যানার বা ফেস্টুন ব্যবহারের আড়ালে কোনো ধরনের লাঠি সোটা বা রড আনা যাবে না। আয়োজকদের নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় সমাবেশের অগ্নিনির্বাপণ ব্যবস্থা এবং ভেহিকল স্ক্যানার ও সার্চ মিরর বসিয়ে যানবাহন তল্লাশির ব্যবস্থা করতে বলা হয় ডিএমপির চিঠিতে। আয়োজকদের নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় ভালো রেজুলেশনের সিসি ক্যামেরাও স্থাপন করতে হবে বলে শর্ত জুড়ে দিয়েছে ডিএমপি। তবে ডিএমপির পাঠানো চিঠিতে বলা হয়, এই অনুমতিপত্র স্থান ব্যবহারের অনুমতি নয়, সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশের জন্য যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে অনুমতি নিতে হবে বিএনপিকে। এ ছাড়া এসব শর্ত ভঙ্গ করা হলে তাৎক্ষণিক অনুমতির আদেশ বাতিল হবে। তাছাড়া কোনো কারণ দর্শানো ছাড়াই অনুমতি বাতিলের ক্ষমতা থাকবে ডিএমপির হাতে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply