Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » » ব্যর্থতার পর মুখ খুলছেন ভারতীয় ক্রিকেটাররা! রোহিত, কোহলির পর এ বার প্রকাশ্যে আরও দু’জন




ব্যর্থতার পর মুখ খুলছেন ভারতীয় ক্রিকেটাররা! রোহিত, কোহলির পর এ বার প্রকাশ্যে আরও দু’জন অধিনায়ক রোহিত শর্মা ম্যাচ শেষেই তাঁর বক্তব্য জানিয়েছিলেন। কোচ রাহুল দ্রাবিড় এসেছিলেন সাংবাদিক বৈঠকে। শুক্রবার সকালে বিরাট কোহলিও বার্তা দিয়েছেন। বিরাট, রোহিতের পর মুখ খুললেন আরও দুই ক্রিকেটার। বিরাট, রোহিতের পর মুখ খুললেন আরও দুই ক্রিকেটার। —ফাইল চিত্র

ভারতের জন্য এ বারের মতো টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শেষ। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ১০ উইকেটে হারের লজ্জা মাথায় নিয়ে ময়দান ছাড়তে হল। অধিনায়ক রোহিত শর্মা ম্যাচ শেষেই তাঁর বক্তব্য জানিয়েছিলেন। কোচ রাহুল দ্রাবিড় এসেছিলেন সাংবাদিক বৈঠকে। শুক্রবার সকালে বিরাট কোহলিও বার্তা দিয়েছেন। এ বার লোকেশ রাহুল এবং সূর্যকুমার যাদবও মুখ খুললেন। Advertisement রাহুল ভারতীয় দলের ছবি পোস্ট করেন। সেই সঙ্গে একটি ভগ্ন হৃদয়ের ইমোজি। সূর্যকুমারও ভারতীয় দলের দলের ছবি পোস্ট করেছেন। তিনি লেখেন, “এই হার খুব ব্যথার। খুব কাছে এসেও, অনেকটা দূরে রয়ে গেল। সমর্থকদের কাছে কৃতজ্ঞ দুর্দান্ত পরিবেশ তৈরি করার জন্য। বিশ্বের যেখানে খেলি তাঁরা পাশে থাকেন। দলের সকলকে ধন্যবাদ একে অপরকে বোঝার জন্য। সকলে যে ভাবে একসঙ্গে লড়াই করেছে তাতে গর্বিত গোটা দলকে নিয়ে। দেশের হয়ে খেলতে পেরে আমি গর্বিত। আমরা আরও শক্তিশালী হয়ে ফিরে আসব।” এ বারের বিশ্বকাপে রাহুল অর্ধশতরান করেন বাংলাদেশ এবং জ়িম্বাবোয়ের বিরুদ্ধে। সেই দু’টি ম্যাচেই অর্ধশতরান করার পরের ম্যাচেই আউট হয়ে যান তিনি। বাকি চারটি ম্যাচেই রান পাননি রাহুল। সূর্যকুমার এ বারের বিশ্বকাপের অন্যতম সেরা ব্যাটার। ৬ ম্যাচে তাঁর সংগ্রহ ২৩৯ রান। গড় ৫৯.৭৫। সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে যদিও দু’জনেই ব্যর্থ। বৃহস্পতিবার হতাশ বিরাট টুইট করে লেখেন, “স্বপ্নপূরণ না করেই অস্ট্রেলিয়া ছাড়তে হচ্ছে। হতাশ হৃদয় নিয়ে ফিরছি আমরা। কিন্তু দল হিসাবে বেশ কিছু ভাল মুহূর্ত নিয়েও ফিরছি। আমাদের লক্ষ্য থাকবে আরও ভাল খেলে ফিরে আসা।” রোহিত ম্যাচ শেষে বলেছিলেন, “নক আউট পর্বে চাপ সামলানোই আসল। এই বিষয়টা সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির উপর নির্ভর করে। চাপ সামলানোর বিষয়টা কাউকে শেখানো যায় না। চাপ নিয়ে খেলা দলের ছেলেদের কাছে নতুন নয়। আইপিএলের প্লে অফ ম্যাচ যখন খেলে তখনও প্রচুর চাপ থাকে। দলের সকলেই চাপ সামলাতে অভ্যস্ত। আসলে সেমিফাইনালে আমাদের বোলিং আক্রমণের শুরুটাই ঠিকঠাক হয়নি। সে সময় আমরা একটু স্নায়ুর চাপে ছিলাম। সেটাই একমাত্র কারণ নয়। ইংল্যান্ডকেও যথেষ্ট কৃতিত্ব দিতে হবে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply