Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » » খাদের কিনারে হংকংয়ের গণতন্ত্র




চীনের বিশেষ প্রশানিক অঞ্চল হংকংয়ে প্রধান বিরোধীদল ‘সিভিক পার্টি’ তাদের সবধরনের কার্যক্রম বন্ধ করে দিচ্ছে। ফলে চীনা নিয়ন্ত্রিত হংকংয়ে গণতান্ত্রিক চর্চা কার্যত ‘ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে’ পৌঁছেছে। বর্তমান অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে গণতন্ত্রপন্থী দলটি হংকংয়ে নিজেদের প্রাসঙ্গিকতা হারিয়ে ফেলেছে। ২০১৯ সালে হংকংয়ে বড় ধরনের গণতান্ত্রিক আন্দোলন সংগঠিত হয়। ফাইল ছবি সিঙ্গাপুর পোস্ট এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, দুই বছর আগে ২০২০ সালে চীন হংকংয়ে জাতীয় নিরাপত্তা আইন প্রয়োগ শুরুর পর থেকে সব ধরনের গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানে পরিবর্তন ঘটছে। ফলে হংকংয়ে নিজেদের প্রাসঙ্গিকতা হারানোর প্রতিষ্ঠানগুলোর তালিকায় যুক্ত হয়েছে সিভিক পার্টি। দলটির চেয়ারম্যান অ্যালান লিওং বলেছেন, ১৬ বছর ধরে সক্রিয় থাকার পর দলটি কার্যক্রম গুটিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তারা। কার্যনির্বাহী কমিটিতে দলটির কোনো সদস্য নমিনেশন বা পদপ্রত্যাশী না হওয়ায় এই ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। আরও পড়ুন : প্রতারণার মামলা /হংকংয়ের মিডিয়া মোগল জিমি লাইকে ছয় বছরের কারাদণ্ড লিওং জানান, সিভিক পার্টি পরবর্তী তার কার্যনির্বাহী কমিটিতে মনোনয়ন প্রত্যাশী কাউকে পায়নি। দলের কার্যক্রম বন্ধের ব্যাপারে ঘোষণা দিতে আগামী বছরের ফেব্রুয়ারিতে জরুরি সভায় চূড়ান্ত ভোটে যাওয়ার ছাড়া আর কোনো বিকল্প নেই। সিঙ্গাপুর পোস্টের প্রতিবেদনে বলা হয়, হংকংয়ের সরকারবিরোধী সিভিক পার্টির ৩০০ জনেরও বেশি সদস্য রয়েছে। দুই বছর আগে চীনের জাতীয় নিরাপত্তা আইন জারির পর অনেক নেতা দল ছেড়ে চলে যান। আগামী ১৭ ডিসেম্বর দলটির একটি বার্ষিক সাধারণ সভা রয়েছে। এরপর কার্যক্রম গুটিয়ে নিতে দলটি জরুরি সভা করবে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply