Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » » » পরিচয় গোপন করে কাতারে ইসরাইলি সেনা




কাতার বিশ্বকাপে ইসরাইলিদের প্রবেশের অনুমোদন রয়েছে। তবে দেশটির কোনো সেনা সদস্যের সেই সুযোগ নেই। সে ক্ষেত্রে পরিচয় গোপন করে কাতারের ঢুকেছেন এক ইসরাইলি সেনা। অবশ্য শেষ পর্যন্ত তার পরিচয় প্রকাশ হয়ে গেছে। এরপর গোপনেই কাতার ছাড়েন তিনি। গত ২০ নভেম্বর কাতারে শুরু হয় বিশ্বকাপ ফুটবল ২০২২। কাতারের সঙ্গে ইসরাইলের কূটনৈতিক সম্পর্ক নেই। তবে ইসরাইলের নাগরিকদের বিশ্বকাপ খেলা দেখতে কোনো বাধা নেই। প্রায় ১০ হাজার ইসরাইলি খেলা দেখতে কাতারে এসেছেন বলে মনে করা হচ্ছে। মিডল ইস্ট মনিটরের এক প্রতিবেদন মতে, ইসরাইলি সেনা গাই হোচম্যান কাতারের ঢুকেছিলেন একজন কৌতুক অভিনেতা পরিচয়ে। কাতার যাওয়ার আগে ফেসবুকে এক পোস্টে তিনি জানিয়েছিলেন, তার উদ্দেশ্য, কাতারে শান্তির বার্তা নিয়ে যাওয়া ও ‘ফানি ভিডিও’ তৈরি করা। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ফিলিস্তিনি-আমেরিকান সাংবাদিক সামার দাহমাশ-জারাহ টুইটারে গাই হোচম্যানের আসল পরিচয় ফাঁস করে দেন। তার আপলোড করা এক ভিডিওতে দেখা যায়, হোচম্যান মূলত ইসরাইল সামরিক বাহিনীর একজন সদস্য ছিলেন। প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, দাহমাশ সিএনএনের কন্ট্রিবিউটর ছিলেন ও টুইটারে এক লাখ ৭১ হাজার ফলোয়ার রয়েছে তার। তিনি হোচম্যানের আসল পরিচয় ফাঁস করে দিয়ে তাকে ‘সন্ত্রাসী’ বলে বর্ণনা করেন। তার আপলোডের পর ওই ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে যায়। দাহমাশ বলেন, হোচম্যান নিজেকে শান্তির দূত বলে পরিচয় দিচ্ছেন অথচ তিনি একজন খুনি। তিনি নাহাল ব্রিগেডের ৯৩২ ব্যাটালিয়নের কমান্ডার ছিলেন। এটি এমন একটি ইউনিট, যা প্রথম ও দ্বিতীয় ইন্তেফাদার সময় হাজারো ফিলিস্তিনিকে হত্যা করেছেন। গাজায় ইসরাইলের অভিযানের সময় এই ইউনিটের সদস্যরা ফিলিস্তিনিদের পরিবারসহ হত্যা করত। আরও পড়ুন: সিরিয়া এখন পরাশক্তিগুলোর ‘খেলার মাঠ’ কাতার বিশ্বকাপের কথা উল্লেখ করে সাংবাদিক দাহমাশ বলেন, এই টুর্নামেন্টে ইসরাইলিদের আসল চেহারা এটাই। ইসরাইলি গণমাধ্যমের খবরে জানানো হয়েছে, হোচম্যান কাতার বিশ্বকাপ চলাকালীন পুরো সময়ই সেখানে থাকবেন বলে গিয়েছিলেন। কিন্তু দাহমাশের ভিডিও আপলোডের পর তিনি দ্রুত কাতার ত্যাগ করেন এবং ইসরাইলে ফিরে আসতে বাধ্য হন।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply