Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » » কিউয়িদের লজ্জায় ডুবিয়ে এক নম্বরে ভারত




ভারতের জোড়া সেঞ্চুরির জবাবে একাই লড়লেন ডেভন কনওয়ে, সেঞ্চুরিও করলেন। তবে তা যথেষ্ট ছিল না দলের জন্য। শেষ পর্যন্ত বড় ব্যবধানেই হারল নিউজিল্যান্ড। ভারতের দেওয়া ৩৮৬ রানের বড় লক্ষ্যে ছুটে সবকটি উইকেট হারিয়ে কিউয়িরা থামে ২৯৫ রানে। ৯০ রানে হেরে তিন ম্যাচ সিরিজে হোয়াইট ওয়াশের লজ্জায় ডুবল টম ল্যাথামের দল। রায়পুরে সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচে হারিয়েই নিউজিল্যান্ডকে সিংহাসন থেকে টেনে নামিয়েছিল ভারত। ইন্দোরে তৃতীয় ওয়ানডে জিতে নিজেরা সিংহাসনে বসে পড়ে টিম ইন্ডিয়া। নিউজিল্যান্ডকে তিন ম্যাচের সিরিজে হোয়াইটওয়াশ করার সুবাদে বিশ্বের এক নম্বর ওয়ানডে দলে পরিণত হয় ভারত। মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) ইন্দোরে টস হেরে আগে ব্যাটিং করে ৯ উইকেট হারিয়ে ৩৮৫ রান তোলে স্বাগতিকরা। বড় সংগ্রহের শুরুটা করেন ভারতের দুই ওপেনার। রোহিত শর্মা আর শুভমান গিল যেন পাল্লা দিয়ে রান করেছেন। একজন এগিয়ে গেছেন তো আরেকজন একটু পরেই তাকে ছাড়িয়েছেন। দুজনের সেঞ্চুরিটাও এলো পাল্লা দিয়েই। একই ওভারে দুজন শতরানের মাইলফলক স্পর্শ করেন। দুজনের ২১২ রানের ওপেনিং জুটির ওপর দাঁড়িয়ে তাণ্ডব চালান হার্দিক পান্ডিয়া ও বিরাট কোহলিরা। কম যাননি শার্দুল ঠাকুর কিংবা সূর্য কুমার যাদবরাও। টি-টোয়েন্টি মেজাজে ব্যাট করেন প্রায় সবাই। কিউয়ি বোলারদের কচুকাটা করেন ভারতীয় ব্যাটাররা। সবচেয়ে বেশি ঝড়টা গেছে মিডিয়াম পেসার জ্যাকব ডাফির ওপর দিয়ে। ১০ ওভার বল করে তরুণ এই পেসার তিন উইকেট নিলেও দিয়েছেন ঠিক একশ রান। ভারতের হয়ে সর্বোচ্চ রান করেন গিল, ৭৮ বলে ১১২ রান। আরেক ওপেনার রোহিত শর্মা করেন ৮৫ বলে ১০১ রান। এছাড়া পান্ডিয়া ৩৮ বলে ৫৪, কোহলি ২৭ বলে ৩৬, শার্দুল ১৭ বলে ২৫ রান করেন। নিউজিল্যান্ডের পক্ষে ডাফি ছাড়া তিন উইকেট পেয়েছেন ব্লেয়ার টিকনার। একটি উইকেট গেছে ব্রেসওয়েলের পকেটে। বড় রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শূন্য রানেই ফিন অ্যালেনকে হারায় সফরকারীরা। তা সত্ত্বেও তাদের ম্যাচে রাখেন কনওয়ে ও হেনরি নিকোলস। দলের ১০০ রান পার করে নিকোলস ফেরেন ব্যক্তিগত ৪২ রানে। এরপর কনওয়ের সঙ্গে জুটি বাঁধেন ড্যারিল মিচেল। দুজনের জুটি থামে ১৮৫ রানে। মিচেলকে ফেরান শার্দুল। এরপর এক প্রান্তে কনওয়ে চেষ্টা করে গেছেন, তবে তাতে লাভ হয়নি। ষষ্ঠ ব্যাটার হিসেবে যখন আউট হলেন ততক্ষণে করেছেন ১০০ বলে ১৩৮ রান। এরপর ব্রেসওয়েলের ২২ বলে ২৬ ও মিচেল স্যান্টনারের ২৯ বলে ৩৪ কেবল হারের ব্যবধানই কমিয়েছে। ভারতের পক্ষে তিনটি করে উইকেট নেন শার্দুল ও কুলদীপ যাদব। দুই উইকেট পেয়েছেন যুজবেন্দ্র চাহাল এবং একটি করে উইকেট নিয়েছেন পান্ডিয়া ও উমরান মালিক। অলরাউন্ডিং পারফরম্যান্সের জন্য ম্যাচ সেরা নির্বাচিত হয়েছেন শার্দুল ঠাকুর এবং সিরিজে একটি করে শতক ও দ্বিশতক হাঁকিয়ে মোট ৩৬০ করার জন্য সিরিজ সেরার পুরস্কার পেয়েছেন শুভমান গিল।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply