Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » শ্রীলঙ্কায় বিদ্যুতের দাম বাড়ল ৬৫ শতাংশ




অর্থনৈতিক সংকটে বিপর্যস্ত শ্রীলঙ্কায় বিদ্যুতের দাম আবারও বাড়ানো হয়েছে। আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) ঋণ নেয়ার পূর্বশর্ত হিসেবে এই দাম বাড়ানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) থেকে বাড়তি দাম কার্যকর হয়েছে। খবর রয়টার্সের। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শ্রীলঙ্কার বিদ্যুৎ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিদ্যুতের দাম ৬৫ শতাংশ বাড়ানোর প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে। দ্বীপ দেশটি আইএমএফের ঋণ সুরক্ষিত করার জন্য এ নিয়ে গত কয়েক মাসের মধ্যে দ্বিতীয় দফায় ব্যাপকভাবে বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধি করল। শ্রীলঙ্কার জ্বালানি ও বিদ্যুৎমন্ত্রী কাঞ্চনা উইজেসেকেরা মূল্য বৃদ্ধির এই ঘোষণা দেন। গত বছরও ৭৫ শতাংশ বেড়েছিল বিদ্যুতের দাম। ফলে গত বছরের তুলনায় জানুয়ারিতে ৫৪ শতাংশ বেশি মূল্যস্ফীতি ও ৩৬ শতাংশ পর্যন্ত আয়করের বোঝায় চরম দুর্দশায় আছে দেশটির জনগণ। সবশেষ এই উদ্যোগে দেশটির জনগণের দুর্ভোগ আরও বাড়বে বলে মনে করা হচ্ছে। আরও পড়ুন: শ্রীলঙ্কায় আয়কর বৃদ্ধির প্রতিবাদে প্রবল বিক্ষোভ উইজেসেকেরা বলেন, ‘আমরা জানি এই উদ্যোগ জনগণের জন্য কষ্টকর হবে, বিশেষত, দরিদ্রদের জন্য। কিন্তু শ্রীলঙ্কা এখন আর্থিক সংকটে আছে। যার ফলে উৎপাদন খরচের সঙ্গে তাল মিলিয়ে বিদ্যুতের মূল্য নির্ধারণ করা ছাড়া আমাদের হাতে কোনো বিকল্প নেই।’ ২০১৯ সালের শেষ দিকে শ্রীলঙ্কার তৎকালীন প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসে জনতুষ্টিমূলক কর কর্তনের পদক্ষেপ নেন। এরপর করোনা মহামারির জেরে ধাক্কা লাগে দেশটির অর্থনীতিতে। কমে যায় সরকারের রাজস্ব। মুদ্রার মান কমে যাওয়ায় উচ্চাভিলাষী অবকাঠামোগত প্রকল্প বাস্তবায়নে নেয়া বৈদেশিক ঋণ পরিশোধে হিমশিম খেতে থাকে শ্রীলঙ্কা। আরও পড়ুন: বিপুল অর্থ ব্যয়ে শ্রীলঙ্কায় স্বাধীনতা দিবস উদযাপন একপর্যায়ে লাগামহীন মুদ্যাস্ফীতি, খাদ্য ও জ্বালানি তেলের তীব্র সংকটের কারণে রাজপথে নামেন সাধারণ মানুষ। পতন হয় সরকারের। নতুন প্রেসিডেন্ট হিসেবে দ্বায়িত্ব গ্রহণ করেন বিক্রমাসিংহে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply