Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

সাম্প্রতিক খবর


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

mujib

w

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » » বোমারু বিমানে চড়ে পশ্চিমাদের ‘প্রচ্ছন্ন হুমকি’ দিলেন পুতিন!




আবারও পারমাণবিক সক্ষমতার জানান দিলেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। রাশিয়ার তৈরি পারমাণবিক অস্ত্র বহনে সক্ষম সুপারসনিক বোমারু বিমানের পরীক্ষামূলক ফ্লাইটে চড়েছেন তিনি। নাভালনির মৃত্যু নিয়ে পশ্চিমাদের একের পর এক তীক্ষ্ণ মন্তব্যের মধ্যেই বৃহস্পতিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) ওই বিমানে চড়েন পুতিন। পারমাণবিক অস্ত্র বহনে সক্ষম কৌশলগত বোমারু বিমান ‘টিইউ-ওয়ান সিক্সটি এম’ মডেলের পরীক্ষামূলক ফ্লাইটে চড়েছেন রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিন। ছবি: সংগৃহীত বিরোধী নেতা নাভালনির মৃত্যু নিয়ে গেল কয়েকদিন ধরেই পশ্চিমাদের কঠোর সমালোচনার শিকার হচ্ছেন পুতিন। তবে এসবের তোয়াক্কা না করেই উল্টো নিজেদের পারমাণবিক সক্ষমতার জানান দিলেন তিনি। বৃহস্পতিবার পারমাণবিক অস্ত্র বহনে সক্ষম কৌশলগত বোমারু বিমান ‘টিইউ-ওয়ান সিক্সটি এম’ মডেলের পরীক্ষামূলক ফ্লাইটে চড়েন রুশ প্রেসিডেন্ট। কাজানের বিমান তৈরির কারখানার নিজস্ব রানওয়ে থেকে পুতিনকে নিয়ে উড্ডয়ন করে সেটি। নাভালনির মৃত্যু নিয়ে পশ্চিমাদের একের পর এক তীক্ষ্ণ মন্তব্যের মধ্যেই বোমারু বিমানে চড়েন পুতিন। ছবি: রয়টার্স বিমানটি সামরিক বাহিনীর গোপন রুটে যাত্রা করে দীর্ঘ ৩০ মিনিট। অবতরণ করেই অত্যাধুনিক এই বিমান নিয়ে নিজের সন্তোষের কথা জানান পুতিন। তিনি বলেন, নতুন প্রজন্মের এই বিমানটি অসাধারণ। প্রযুক্তিগতভাবে এটিকে অনেক এগিয়ে নেয়া হয়েছে। আসন্ন ভবিষ্যতে এটি আমাদের প্রতিরক্ষা খাতে যুক্ত করা হতে পারে। জানা গেছে, সোভিয়েত আমলের বোমারু বিমানের আধুনিক সংস্করণ এই বোম্বারটি, যা সেসময় পরমাণু অস্ত্র সরবরাহে ব্যবহার হতো। আরও পড়ুন: কিমের জন্য গাড়ি উপহার পাঠালেন পুতিন আধুনিক করে এটিকে আরও ৬০ শতাংশ বেশি কার্যকর করে তোলা হয়েছে। চার ক্রু'র বোমারু এই বিমানটি ১২টি ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র অথবা স্বল্পমাত্রার ১২টি নিউক্লিয়ার মিসাইল বহন করতে পারে। একবার জ্বালানি নিয়েই একটানা চলতে পারে ১২ হাজার কিলোমিটার। নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে ২০১৮ সালে হওয়া চুক্তি অনুযায়ী, ২০২৭ সাল নাগাদ রাশিয়ার বিমান বাহিনীকে ১০টি টিইউ- ওয়ান সিক্সটি এম পারমাণবিক অস্ত্র বহনে সক্ষম বোমারু বিমান সরবরাহের কথা রয়েছে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply