Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

সাম্প্রতিক খবর


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

mujib

w

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » » গাজায় বন্দর নির্মাণে সরঞ্জামের প্রথম চালান পাঠিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র




গাজা উপকূলে একটি অস্থায়ী ঘাট নির্মাণের জন্য সরঞ্জাম নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক জাহাজ মধ্যপ্রাচ্যের দিকে যাত্রা শুরু করেছে বলে জানিয়েছে সেনাবাহিনী। রোববার ( ১০ মার্চ) এক প্রতিবেদনে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে সংবাদমাধ্যম বিবিসি। গাজায় ঘাট নির্মাণের সরঞ্জাম নিয়ে যাত্রা শুরু করেছে দ্য জেনারেল ফ্রাঙ্ক এস বেসন জাহাজ। ছবি:সংগৃহীত শনিবার (৯ মার্চ) ভার্জিনিয়া অঙ্গরাজ্যের একটি সামরিক ঘাঁটি থেকে জেনারেল ফ্রাঙ্ক এস বেসন নামে ওই সহায়তা জাহাজটি রওনা হয়। সমুদ্রপথে গাজায় ত্রাণসহায়তা ঢুকতে যুক্তরাষ্ট্র ভাসমান বন্দর তৈরি করবে জো বাইডেনের এমন ঘোষণার পরই এই পদক্ষেপ শুরু করল ওয়াশিংটন। বাইডেন তার স্টেট অব দ্য ইউনিয়ন ভাষণে এমন ঘোষণা দেয়ার ৩৬ ঘণ্টারও কম সময়ের মধ্যে যাত্রা শুরু করল জাহাজটি। আরও পড়ুন:গাজায় শরণার্থী শিবিরে আবারও ইসরাইলের হামলা, নিহত অন্তত ১৩ যুক্তরাষ্ট্রের সেন্ট্রাল কমান্ড এক এক্স বার্তায় লেখেন, গাজায় মানবিক সহায়তা পৌঁছাতে একটি অস্থায়ী ঘাট নির্মাণ সরঞ্জামের প্রথম চালান নিয়ে যাত্রা শুরু করেছে জাহাজ জেনারেল ফ্রাঙ্ক এস বেসন। এটি নির্মাণে ১ হাজার সেনাসদস্যের সময় লাগবে প্রায় ৬০ দিন। এদিকে রোববার (১০মার্চ) সকালে প্রায় ২০০ টন খাদ্য বোঝাই একটি ত্রাণসহায়তা জাহাজ সাইপ্রাসের একটি বন্দর থেকে যাত্রা করার জন্য ছাড়পত্রের অপেক্ষায় ছিল। ত্রাণসহায়তা জাহাজ ওপেন আর্মস। ছবি:সংগৃহীত আশা করা হচ্ছে, ওপেন আর্মস নামের জাহাজটি সোমবারের আগে ছেড়ে যেতে পারবে। তার আগে সাইপ্রাস থেকে সরাসরি গাজায় ত্রাণ পাঠানোর জন্য একটি নতুন সমুদ্র পথ খোলা হবে বলে ঘোষণা দেবে ইইউ। আরও পড়ুন:গাজা যুদ্ধ / বিমান থেকে ত্রাণ ফেলে কি দুর্ভিক্ষ কমছে? ইসরাইল সমুদ্রপথের এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছে এবং বলেছে যে ইসরাইলের মান অনুযায়ী নিরাপত্তা পরীক্ষা চালানোর পরেই ত্রাণসহায়তা প্রদান করার অনুমতি দেয়া হবে। গত ৭ অক্টোবরে ইসরাইলে হামাসের হামলার পর অব্যাহতভাবে গাজায় হামলা চালিয়ে যাচ্ছে ইসরাইল। এখন পর্যন্ত গাজায় ৩০ হাজার ৯ শ’রও বেশি মানুষ নিহত হয়েছেন। সেখানে প্রায় ৩ লাখের মতো মানুষ কোনোভাবে খেয়ে না খেয়ে বেঁচে আছেন।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply